ভালোবাসার কষ্টের স্ট্যাটাস

ভালোবাসার কষ্টের স্ট্যাটাস

প্রতিটি মানুষের জীবনে প্রেম আসে। ভালোবাসা যেমন মানুষের জীবনে আনন্দ বয়ে আনে তেমনি তা অনেক সময় কষ্টের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। কিছু কিছু কষ্ট আছে যা কখনো ভোলা যায়না। সেই কষ্টগুলো জীবনকে গ্রাস করে ফেলে। ভালোবাসা থেকে যে কষ্ট পাওয়া যায় তা অনেকটা অসহনীয় হয়ে যায়। অনেকেই আছে যারা ভুলতে পারে। আবার অনেকে আছে যারা কখনো ভুলতে পারে না। সেই কষ্টগুলো বুকে জমাট বেঁধে বারবার তা কান্না হয়ে বের হয়ে যায়। কিন্তু সে কান্না থামার নয়। আজকে আমি ভালোবাসার কষ্টের স্ট্যাটাস নিয়ে এসেছি। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে। তাই সম্পূর্ণ পোস্টটি ভাল করে পড়ুন।

ভালোবাসার কষ্টের স্ট্যাটাস

সেখানেই কি স্তব্ধ আমি নাকি এগোতে পেরেছি?
তোমাতে কি সীমাবদ্ধ আমি নাকি বেরিয়ে এসেছি?
সত্যিই কি রঙ বদলে সার্থপর হয়েছি আমি?
হারিয়ে ফেলেছি কি স্বপ্ন যা ছিলো অনেক দামি?
একাকিত্বেই কি রয়েছি আমি নাকি কেউ আমায় ঘীরে বাচে?
ফিরে পাবো কি আবার কাউকে আসবে কি কেউ কাছে?
নতুন পথের সন্ধান আমি পাবো এই বাকে?
নাকি এবাবেই হবে শেষ অপূর্ণ সব ফাকে?
টানা হবে কি সমাপ্ত রেখা না করে সব মিল?
থাকবে কি শুকনো পরে এই জীবন নামের বিল?
কিছু কথা না বলাই থাকে হয়না তার প্রকাশ,
কিছু চিঠির ঠিকানা হয় ঐ খোলা আকাশ।
কিছু কান্নার হয়না শব্দ হৃদয়ে হয় কাপন,
কিছু সম্পর্ক দূরে থাকে তবুও আত্তার বাধন।
কিছু অবেগ বলা হয়না বুকেই সমাধি তার,
কিছু ভালবাসা লুকানো ভাল কমতি নেই তার।
কিছু মানুষ অনেক আপন তবুও থাকে দূরে,
কিছু কথা মনেই বাজে হয়তো ভিন্ন সুরে।
মায়ার সব বাধন ছেড়ে এসেছি ফিরে দেখিনি পিছু,
সবাইকে ছেড়ে আমি একা সাথে এই বহু কিছু
আজ নাকি বৈশাখ কই তবে তুমি যে আসলেনা,
হাতে চুরি খোপায় বেলি ফুলে তুমি যে সাজলেনা?
এই বাতাসে প্রেম ভাষে দেয়না কি তোমায় হাতছানি?
অফুরন্ত ভালবাসা সব যা হাওয়ায় মিশিয়ে দেই আমি।
তোমার আশায় বৈশাখ গুলো হচ্ছে বার বার ফিকে,
জানালায় তোমার প্রেম চিরকুট তুমি তাকাওনা সেদিকে।
তোমার আমার গল্পটা এক ছেড়া বিচ্ছিন্ন তার,
জানি তুমি আসবেনা হলেও হাজারো বৈশাখ পার।
→আজ এই উৎসব মুখর দিনে হে স্নিগ্ধ বাতাশ তাকে আমার হয়ে একবার ছুয়ে কানে কানে বলে দিয়ে আবার তার আলিংগন নিয়ে ফিরে এসো আমার কাছে, আর বলে এসো তাকে

কষ্টের স্ট্যাটাস ভালোবাসার

রয়েছে তোমার আলিংগন,
না হয়েও আলাপন,
দেখার ইচ্ছা প্রতিক্ষণ,
হয়েছে কিনা পরিবর্তন,
তুমিতে আকাশ তুমিতে বাতাস আলোকপাত ও তুমি,
তুমি শীতল বৃষ্টি কিংবা শিশির ভেজা ভোরের পরশমণি,
নকশীকাঁথায় তৈরি চিত্রে শুধু তোমার আচ্ছাদন,
যেন তৃপ্ত গ্রীষ্মের দুপুরে আমি চাতক তুমি বৃষ্টির পানি ফোটা নেমে এসো একবার এই পিপাসিত ঠোঁটের সংস্পর্শে একটিবার অঝোর ধারায় বইতে বইতে এসো জড়িয়ে নিয়ো আমাকে তোমার বুকে শীতল করো দিয় দেহ মন
এই রইলো আমার আকুল আবেদন………………..
প্রকৃতি এখানে ভগ্নহৃদয় হয়ে বিষন্ন,
ছেড়া শাল জড়িয়ে অবিচ্ছেদ্য শূন্য।
ভূপৃষ্ঠে হাড়িয়ে অতল গম্ভীর ভাবনায়,
মৃত্যু অনিবার্য তবু না দেখা কাল জানালায়।
যেখানে আগামী নিশ্বাস হয়তো বেইমান হবে,
ভালবাসা বিলিয়ে প্রকৃতি নিজে চলমান রবে।
সেখানে মুহূর্তেই দরিয়া বালুচর হয়,
অহংকার সেখানে ছিটেফোঁটাও নয়।
চলছে যেমন চলবে তেমন তবুও সময় স্তব্ধ হবে,
ওহে মানব সন্তান ………….
কিসের এত মোহো মায়া সবই তোহ ছাড়তে হবে?
এখনো কি আগের মতো রয়েছো তুমি,
যেমন টা রেখে এসেছিলাম আমি?
এখনো কি আগের মতো হাসো তুমি,
ঠিক যেমন উজ্জীবিত দেখেছিলাম আমি?
এখনো কি সেই গম্ভীর মনে থাকো রাগ হলে,
নাকি এখনো হাসতে শিখেছো কেউ রাগ ভাঙায় না বলে?
এখনো কি সেই মায়াবী চোখে কাজল শোভা পায়,
নাকি এখন চোখ দুটো পর্দার আড়ালেই লুকায়?
এখনো কি আগের মতো বাধ্য রয়েছো শাসনে,
নাকি এখন মানিয়ে নিয়েছো নিজেকে গিন্নির আসনে?
রেখে এসেছিলাম যেমন তোমায় নেই তো তুমি তা ,
শুনলাম নাকি হয়েগেছো তুমি এক সন্তানের মা !

আবেগি কষ্টের স্ট্যাটাস

রাত এখন মধ্য প্রহরে
চাঁদ আমার স্তব্ধ শহরে
হাতে এসেও যেনো আসেনা
আলো দিয়েও যেনো দেয়না
তুমি দূরে থেকেও কাছে
অন্যের তবুও আমার পাশে
সুখের সেই হাসামাখা সময়ে অনুপস্থিতি তোমার
মনখারাপ এর দেশে পাশে পাই হাতে হাত প্রতিবার
না-পাওয়ার খাতায় তুমিই এক বড় অধ্যায় আছো
স্বপ্নের দেশে তবুও পুরোটা জুড়ে আমাকে নিয়ো বাচো
কি অদ্ভুত এই তোমার ভালবাসা
আমার খারাপ সময়ে তোমার কাছে আসা
একি শুধুই মনের ভ্রম নাকি তোমারও মনের ইচ্ছাছিলো
এভাবে কেনো স্বপ্নে এসে ক্ষনিকে মনে হরশের দোল দিলো
বৃষ্টি দেখে পুরনো সেই অনেক কথাই মনে পরে
পুরনো অনেক সৃতি এসে চোখের সামনে ভীড় করে
শীতল পানি স্পর্শে মনটা কে খুব স্থীর কোরে
মানিয়ে নিয়েছি অনেক কিছু অনিচ্ছায় জোর করে
অসময়ের এই আগমনে খুশিতে গেলো মন ভড়ে
শীতের শেষের বৃষ্টি টা নেমেছে মাটির বুক জুড়ে
রিমঝিম এই শব্দে চারদিক টা রেখেছে ঘীরে
কিছু ছিটেফোঁটা গড়িয়ে এসেছে ভিতর ঘরে
প্রতিটি ফোটায় অনুভব করি যাকে এই বৃষ্টি ভীরে
চালে বৃষ্টির আলিংগন যে শুধু তার নামের সুরে
ছুয়ে গেছে বৃষ্টি আমার যদিও বহুদিনের পরে
বৃষ্টি যেমন পছন্দ খুব তেমন তাকেই খুব ভয় করে

ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস

জীবন আমার কেমন ছিলো এসেছি আমি কোথায়,
ফিরে যেতে ইচ্ছে হয় সৃতি জড়ানো সেথায়,
কোথায় পড়ে রইলো আমার ভাঙা ঘরের জানালা,
সেই সে ঘুমালাম আর তোহ দেখা হলোনা
মাঝরাতে ঘুম ছেড়ে কোথায় যাওয়ার আয়োজন,
আমার ঘরে আছে আমার কতোই না প্রিয়জন।
ঘর ছেড়ে ঘুমাই আমি পাইনা কোথাও সুখ,
কোথায় আমার বন্ধুরা হাজারো পরিচিত মুখ
নীল রঙ টা প্রিয় খুব লাগে এখনো বেশ,
হয়তো তাই সেই রঙেই তোমায় দেখেছি শেষমেশ।
স্বাদ জেগেছিলো দেখার তোমায় বদলে গেছো নাকি?
সব কিছু কি ভুলে গেছো নাকি অন্ধকারেও কিছুটা আলো বাকি?
দেখা হয়েছে কথাও হয়েছে হয়নি কোনো লাভ,
আর কিছুক্ষণ থাকতে বন্ধু বাকি প্রেমাআলাপ।
জেগেছে অনেক স্বাদ আহ্লাদ তোমায় দেখে আবার,
মনে করে তোমার সৃতি কথা আমি প্রেম পড়ি বারবার।
তুমি ছিলে তুমি আছো আর থাকবেও জীবন জুড়ে,
হয়তো এভাবেই হবে কথোপকথন বহুদিন পর কিংবা বছর ঘুরে।

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *