রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা ও ভিজিট ভিসা

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা ও ভিজিট ভিসা

আপনি যদি কম খরচে স্কলারশিপ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে চান তাহলে রোমানিয়া আপনার জন্য ভালো হবে। রোমানিয়া কম খরচে স্কলারশিপ নিয়ে পড়াশোনা করা যায়। যার কারণে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে প্রতিবছর হাজার হাজার শিক্ষার্থী সেখানে পাড়ি জমায় পড়াশোনার উদ্দেশ্যে। রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসায় চার বছর মেয়াদে আপনি সেখানে গিয়ে পড়াশোনা করার পাশাপাশি পার্ট টাইম জব করতে পারবেন। এই সুযোগ-সুবিধা আপনি ইউনিভার্সিটি কর্তিক পেয়ে যাবেন।

এছাড়াও রয়েছে আরো অনেক সুযোগ সুবিধা। এত সুযোগ সুবিধার থাকার কারণে রোমানিয়ায় পড়াশোনা করতে অনেক শিক্ষার্থী আগ্রহ প্রকাশ করে থাকে। যারা স্টুডেন্ট ভিসায় রোমানিয়া যেতে চান তাদের রোমানিয়া যাওয়ার পূর্বে সকল বিষয় সম্পর্কে অবগত থাকা প্রয়োজন। এর জন্য তাকে ভিসা আবেদনের নিয়ম ও ভিসা আবেদনের জন্য কি কি জিনিসপত্র প্রয়োজন হয় সবকিছু সম্পর্কে জানা আবশ্যক। এতে করে আপনাদের কোন সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা

অল্প খরচে পড়াশোনার জন্য রোমানিয়া অন্যতম। অন্যান্য দেশে পড়াশোনা করতে যে পরিমাণ খরচ হয়, রোমানিয়া পড়াশোনা করতে তার চার ভাগের এক ভাগও খরচ হয় না। আর রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা খরচ অত্যন্ত কম। শুধুমাত্র পড়াশোনার জন্য আপনার IELTS Score ভালো থাকলেই হবে। যদি আপনারা IELTS SCORE ৫.০০ অথবা এর উপরে হয় তাহলে আপনি রোমানিয়া যেতে পারবেন। আর আপনার থাকবে স্কলারশিপ এর সুযোগ সুবিধা।

এছাড়াও রোমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয় আরেকটি সুযোগ দিয়ে থাকে তা হল পার্ট টাইম জব এর সুযোগ। কিন্তু সব দেশেই এই সুযোগ দেয় না। এত সুযোগ সুবিধা দেয়ার কারণে বেশিরভাগ স্টুডেন্ট পড়াশোনার জন্য রোমানিয়া পাড়ি জমায়। এছাড়াও রোমানিয়া যেতে স্টুডেন্ট ভিসার ক্ষেত্রে অনেক কম খরচ পরে।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা খরচ

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসায় যেতে খরচ পড়ে ৭০ থেকে ৯০ ইউরো। তবে বিভিন্ন কারণবশত টাকার পরিমাণ কমবেশি হতে পারে। বিশ্ববিদ্যালয় একটু বেশি উন্নত মানের হলে তখন আপনার খরচ পড়ে ৯০ ইউরো। সুতরাং বুঝতেই পারছেন খরচ কতটা কম। যেহেতু আমাদের দেশের বেশিরভাগ মানুষ middle-class। সুতরাং তাদের জন্য রোমানিয়া পড়াশোনা করতে যাওয়া ভালো হবে। কেননা এতে খরচের পরিমাণ কম হবে এবং আপনি পার্ট টাইম জব করে তা পুষিয়ে নিতে পারবেন।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা আবেদন

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসায় যেতে আপনার প্রথমে ভিসা আবেদন করতে হবে। এর জন্য প্রথমে আপনাকে রোমানিয়া ভিসা আবেদনের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে সেখান থেকে ভিসা আবেদন করতে হবে। ভিসা আবেদন করার পর আপনাকে অবশ্যই ফরমটি বের করে নিতে হবে। আর আপনি যদি আবেদন করতে না পারেন তাহলে দালালের মাধ্যমে আপনি আবেদন করে নিতে পারেন। এছাড়াও রোমানিয়া ভিসা এম্বাসি থেকে আবেদন করতে পারেন। চলুন জেনে নেয়া যাক ভিসা আবেদনের জন্য কি কি প্রয়োজন।

১। একটি বৈধ পাসপোর্ট।

২। সদ্যতোলা রঙিন ছবি।

৩। যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে চান তার অফার লেটার।

৪। যে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির জন্য আবেদন করেছেন তার আবেদন ফরমের কপি।

৫। এসএসসি ও এইচএসসি এর সার্টিফিকেট ও মার্কশিট।

৬। IELTS এর সার্টিফিকেট।

৭। Covid – 19 এর টিকা গ্রহণের সার্টিফিকেট।

৮। পরিবারের কোন সদস্যের ব্যাংক ডকুমেন্ট।

৯। পুলিশ ক্লিয়ারেন্স।

উপরের দেয়া তথ্যগুলো সবকিছু আপনার বৈধ থাকতে হবে। যদি কোনদিন না থাকে তাহলে আপনি রোমানিয়া যেতে পারবেন না। তাই রোমানিয়া যাওয়ার পূর্বে উপরের কাগজপত্র গুলো ঠিক করে নিতে হবে।

রোমানিয়া ভিজিট ভিসা

যারা রোমানিয়া ভিজিট ভিসায় যেতে চান তাদের জন্য রয়েছে সুবর্ণ সুযোগ। বিশেষ করে রোমানিয়া তাদের আত্মীয়-স্বজন রয়েছে তারা কোন ভেজাল ছাড়াই 30 থেকে 90 দিনের জন্য রোমানিয়া গিয়ে ঘুরে আসতে পারবেন। এখানে যে ভিজিট ভিসা প্রদান করবে তার মেয়াদ থাকবে সর্বোচ্চ তিন মাস। যদি আপনার কোন আত্মীয় স্বজন রোমানিয়া না থাকে আপনি তাও ভিজিট ভিসায় রোমানিয়া যেতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে আপনার সকল কাগজপত্র ক্লিয়ার করতে হবে।

রোমানিয়া আত্মীয় থাকলে খরচ কিছুটা কম হয়। আর যদি আপনার কোন আত্মীয় না থাকে তাহলে আপনার খরচ একটু বেশি হবে। রোমানিয়া ভিজিট ভিসায় যেতে আপনার খরচ পড়বে ১৫০ থেকে ১৯০ ইউরো। তবে বিভিন্ন কারণবশত এই টাকার পরিমাণ কিছুটা কম বেশী হয়ে থাকে।

রোমানিয়া ভিজিট ভিসা খরচ

ভিজিট ভিসায় রোমানিয়া যেতে আপনার খরচ পড়বে 150 থেকে 190 ইউরো। তবে যদি আপনার কোন আত্মীয় রোমানিয়া থেকে থাকে তাহলে আপনার খরচ আরো কম পড়বে। রোমানিয়ার কোন অধিবাসী যদি চায় তাহলে তাদের আত্মীয়-স্বজন অতি অল্প খরচে রোমানিয়া ঘুরিয়ে নিয়ে আসতে পারবে। সরকার এ সুযোগের ব্যবস্থা করে দিয়েছে।

রোমানিয়া ভিজিট ভিসা আবেদনের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

১। একটি বৈধ পাসপোর্ট।

২। সদ্যতোলা রঙিন ছবি।

৩। যে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির জন্য আবেদন করেছেন তার আবেদন ফরমের কপি।

৭। Covid – 19 এর টিকা গ্রহণের সার্টিফিকেট।

৮। পরিবারের কোন সদস্যের ব্যাংক ডকুমেন্ট।

৯। পুলিশ ক্লিয়ারেন্স।

আরো পড়ুন

মালদ্বীপ ভিসার দাম কত , মালদ্বীপ যেতে কত টাকা লাগে?

আমেরিকা স্টুডেন্ট ভিসা খরচ – ভিসা আবেদনের নিয়ম

জাপান যেতে কত টাকা লাগে – জাপান কাজের ভিসা

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *