জাপান যেতে কত টাকা লাগে – জাপান কাজের ভিসা

জাপান যেতে কত টাকা লাগে – জাপান কাজের ভিসা

পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোর মধ্যে জাপান অন্যতম। জাপান পূর্ব এশিয়ার একটি দ্বীপ রাষ্ট্রজাপান যেতে কত টাকা লাগে। এর পাশেই রয়েছে তাইওয়ান রাষ্ট্র। আপনি যদি উন্নতশীল দেশ সম্পর্কে জানতে চান তাহলে জাপান তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ। কেননা খুব অল্প সময়ের মধ্যে জাপান উন্নত হয়েছে। জাপানের উন্নতির পেছনে রয়েছে অক্লান্ত পরিশ্রম ও ধৈর্য। উন্নত দেশ হওয়ায় আমাদের দেশের অসংখ্য মানুষ জাপানে পাড়ি জমাতে চাই। এর জন্য প্রতি বছর হাজার হাজার মানুষ জাপানের ভিসার জন্য আবেদন করে। জাপান যেতে কয়েক ধরনের ভিসা পাওয়া যায়। যার মধ্যে অন্যতম কাজের ভিসা, স্টুডেন্ট ভিসা, ফ্যামিলি ভিসা।

আজকের এই পোস্টে আমি জাপান যেতে কত টাকা লাগে, জাপানের ভিসা খরচ, ভিসা আবেদন করতে কি কি লাগে, আবেদনের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সবকিছু নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব। কেননা এ সকল জিনিস সম্পর্কে যদি আপনার ধারনা না থাকে তাহলে আপনি সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। যার কারনে ভিসা আবেদন করার পূর্বে এই সকল জিনিস সম্পর্কে বিস্তারিত জানা প্রয়ো। যারা জাপান যেতে আগ্রহী এবং জানতে চান জাপান যেতে আপনার কত খরচ পড়তে পারে তাদের জন্য পোস্টটি সাজানো হয়েছে।

জাপান যেতে কত টাকা লাগে

যারা জাপান যেতে আগ্রহী তাদের কাছে একটাই প্রশ্ন জাপান যেতে কত টাকা লাগে। জাপান যেতে আপনার কত টাকা লাগবে তা নির্ভর করবে আপনি কোন ভিসায় জাপান যাবেন তার উপর। যদি আপনি পড়াশোনার জন্য জাপান যান তাহলে আপনার তেমন খরচ পড়বে। কিন্তু আপনি যদি কাজের ভিসায় অথবা ভিজিট ভিসায় অথবা ফ্যামিলি ভিসায় জাপান যেতে চান তাহলে আপনার খরচ বেশি পড়বে। আপনি যদি স্টুডেন্ট ভিসায় জাপান যেতে চান তাহলে আপনার খরচ পড়বে বাংলাদেশি টাকায় 70 থেকে 80 হাজার টাকা (জাপান দূতাবাসের তথ্যমতে) ।

আর আপনি যদি ফ্যামিলি ভিসায় জাপান যেতে চান তাহলে আপনার খরচ পড়বে এক লক্ষ থেকে দেড় লক্ষ টাকা। আর আপনি যদি কাজের ভিসায় জাপান যেতে চান তাহলে আপনার খরচ পড়বে জাপানি টাকায় ৩০০০ ইয়েন। 3000 ইয়েন খরচ পড়বে একক ভিসার ক্ষেত্রে। যদি ডাবল যেতে চান তাহলে আপনার খরচ পড়বে জাপানি টাকায় 6000 ইয়েন। জাপানি টাকাকে ইয়েন বলা হয়। আর যদি টুরিস্ট ভিসায় যেতে চান তাহলে আপনার খরচ পড়বে সিঙ্গেল এর জন্য INR ১৫০০।

জাপান কাজের ভিসা

আপনি যদি কাজের ভিসায় জাপান যেতে চান তাহলে আপনার কাজের ধরন অনুযায়ী ভিসার টাকা বাড়বে। এখন আপনি যদি ভাল কোন কোম্পানির কাজে যান তাহলে আপনার টাকা বেশি লাগবে। আর আপনি যদি কৃষি কাজে যান তাহলে আপনার খরচ কম পড়। কাজের ভিসায় জাপান যেতে খরচ পড়ে 10 থেকে 12 লক্ষ টাকা দালালের মাধ্যমে। আর আপনার পরিচিত কোন ব্যক্তি যদি জাপান থাকে সেক্ষেত্রে সে যদি ভিসা পাঠায় তবে আপনার খরচ কম পড়।

তবে আপনি যদি রেস্টুরেন্ট অথবা ভালো কোন কোম্পানিতে কাজের উদ্দেশ্যে যান তাহলে আপনার ভিসা বের করতে এবং সমস্ত প্রসেসিংয়ের জন্য 10 থেকে 12 লক্ষ টাকা খরচ হবে। তবে মনে রাখবেন জাপান কাজের বেতন হিসেবে ডলারে টাকা প্রদান করে থাকে। আর জাপানে কোন কোম্পানির কাজে সর্বনিম্ন বেতন 5000 ডল। যা বাংলাদেশী টাকায় 5 লক্ষ টাকা। সুতরাং বুঝতেই পারছেন যে টাকা বেশি লাগলেও দুই মাসের মধ্যে তা পুষিয়ে যা।

জাপান স্টুডেন্ট ভিসা

অনেকেই পড়াশোনার উদ্দেশ্যে জাপান যায়। আমরা সকলেই জানি প্রযুক্তিগত দিক থেকে জাপান খুবই উন্নত। আর জাপানের পড়াশোনার মান অনেক উন্নত হয়ে থাকে। যার কারণে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে বেশির ভাগ মানুষ পড়াশোনার জন্য জাপান গিয়ে থা। তবে সবচেয়ে বেশি মানুষ যায় আমেরিকার। জাপান স্টুডেন্ট ভিসায় যেতে আপনার খরচ পড়ে 70 হাজার থেকে 80 হাজার টা। আর টাকা বেশির ভাগ নির্ভর করে আপনার ভার্সিটির ওপর।

ভার্সিটি যত নামিদামি হবে টাকার পরিমাণ তত বেশি হবে। তাছাড়া বিদেশীদের জন্য বেশিরভাগ ভার্সিটি স্কলারশিপ দিয়ে থাকে। স্কলারশিপ দেয়ার কারণে বাইরে থেকে আসা ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ভর্তি বাবদ সকল খরচ অনেক কম লা। যেহেতু পড়াশোনাটা দীর্ঘমেয়াদি প্রায় চার থেকে পাঁচ বছর হয়ে থাকে তাই প্রতিটা ভার্সিটি স্কলার্শিপ ব্যবস্থা করে রেখেছেন।যাতে করে বাইরে থেকে আসা ছাত্র ছাত্রীরা পড়াশোনা করতে পা।

জাপান ভিজিট ভিসা

আপনি যদি বেড়ানোর উদ্দেশ্যে জাপান যেতে চান তাহলে আপনার খরচ পড়বে জনপ্রতি INR 1500। ব্যক্তি যত বেশি হবে টাকার পরিমাণ যত বাড়বে। তাছাড়া বিভিন্ন কারণে খরচ এর চেয়ে কিছুটা কম বেশি হতে পারে। তবে জাপান যাওয়ার পূর্বে জাপান দূতাবাসের সাথে আলোচনা করে গেলে সবচেয়ে বেশি ভালো হয়। এক্ষেত্রে তারা আপনাকে একদম ওই সময়ের সঠিক টাকার পরিমাণটা জানিয়ে দি। তবে খুব একটা কম বেশি হয় না।

জাপান ভিসা আবেদনের নিয়ম

  • আবেদনকারীর দ্বারা প্রতি কর্ম দিবসে 9:00 থেকে 11:00 পর্যন্ত।
  • প্রয়োজনীয় সকল নথি সহ আপনার আবেদন পত্র জমা দিন।
  • আপনি যখন আপনার আবেদন জমা দেবেন তখন আপনি একটি “আবেদন রসিদ” পাবেন।
  • সেটি সযত্নে রেখে দিবেন।

Read More

মালয়েশিয়া ভিসা চেক করার নিয়ম

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে – ভিসা খরচ ও আবেদনের নিয়ম

মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা – ফ্যাক্টরি ভিসার বেতন কত

মালদ্বীপ ভিসার দাম কত , মালদ্বীপ যেতে কত টাকা লাগে?

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *