কিভাবে আনঅফিসিয়াল মোবাইল রেজিস্ট্রেশন করা যায়

কিভাবে আনঅফিসিয়াল মোবাইল রেজিস্ট্রেশন করা যায়

কিভাবে আনঅফিসিয়াল মোবাইল রেজিস্ট্রেশন করা যায়। আপনি যে মোবাইলটি ব্যবহার করেন তা আনঅফিসিয়াল বলে সে মোবাইল নিয়ে হয়তোবা আপনি চিন্তিত রয়েছে । কারণ বাংলাদেশের বিটিআরসি এর পক্ষ থেকে আনঅফিসিয়াল ফোন বন্ধের প্রস্তাব এসেছ বিটিআরসির উত্তর অনুযায়ী আনঅফিসিয়াল মোবাইল ফোন 2021 সালের জানুয়ারি মাস থেকে এপ্রিল মাসের মধ্যে বন্ধ হওয়ার কথা ছিল কিন্তু সে সময় বাড়িয়ে আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছিল। কিন্তু এসকল ফোন একদম বন্ধ না করে ধীরে ধীরে রেজিস্ট্রেশন করার ব্যবস্থা করছে বিটিআরসি। তাই আপনাদের কিভাবে আনঅফিসিয়াল মোবাইল রেজিস্ট্রেশন করা যায় সম্পর্কে আমরা ধারণা দিতে নতুন একটি পোস্ট নিয়ে চলে এলাম।

আমরা হয়তো এটা জানি যে জুন মাস 2021 এর আগে সকল আনঅফিসিয়াল ফোন অটোমেটিক রেজিস্ট্রেশন হয়ে যাবে। কিন্তু আগস্ট মাসের পরে বিদেশ থেকে আনা যেকোনো ফোন আমাদেরকে রেজিস্ট্রেশন বা নিবন্ধন করে নিতে হবে। যদি কারো কাছে অ্যাক্টিভা দুইটি আনঅফিসিয়াল ফোন থাকে তবে সে ফোনটি নিবন্ধন করতে পারবে। কিন্তু যদি কেউ ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে অনেক ফোন এনে থাকে তবে তার ফোনগুলো রেজিস্ট্রেশন বা নিবন্ধন হবে না। বিদেশ থেকে যদি কেউ তার কোনো আত্মীয় কে একটি ফোন গিফট করে তবে সেই ফোনটি রেজিস্ট্রেশন করা যাবে।

কিভাবে আনঅফিসিয়াল মোবাইল রেজিস্ট্রেশন করা যায়

প্রথমে আপনার ফোনটি অফিশিয়াল বা আনঅফিসিয়াল কিনা তারচেয়ে করতে হবে এবং এরপর ফোনটি আনঅফিসিয়াল হলে নিচের সকল ধাপগুলো অনুসরণ করে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

কোন মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করতে হবে আর কোনটি হবে না

বিটিআরসির সর্বশেষ আপডেট অনুযায়ী এটা বলা হয়েছে যে 2021 এর জুন মাসের পূর্বে কেনা যেকোনো আনঅফিসিয়াল মোবাইল ফোন সিমের মাধ্যমে নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত করা হলে বা কথা বললে ফোনটি সেই সিমের দাঁড়া অটোমেটিক রেজিস্ট্রেশন হয়ে যাবে। এতে করে গ্রাহকের কোন হয়রানি ভোগ করতে হবে না। যারা জুন মাসের পরে নতুন আনঅফিসিয়াল ফোন কিনেছেন বা কিনতে চাচ্ছেন তাদেরকে মোবাইল ফোন গুলো রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে। এক্ষেত্রে এটা বোঝা যায় যে বিটিআরসি আমাদের সকলকে নিজেদের আনঅফিসিয়াল মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করার জন্য বিভিন্ন রকমের সুযোগ দেবে। তারমানে অনেকের মাঝে যে সকল প্রশ্ন রয়েছে যেমন তাদের আনঅফিসিয়াল কোনটি এখনো রেজিস্টেশন করা যাবে কি যাবে না তার উত্তর হল আপনার আনঅফিসিয়াল ফোনটি অবশ্যই রেজিস্ট্রেশন বা নিবন্ধন করা যাবে।

কিভাবে মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করবেন

যারা 30 শে জুন 2021 এর আগে আনঅফিসিয়াল মোবাইল ফোন কিনেছেন তাদের ফোনটি ফোনে ব্যবহৃত সিমের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন হয়ে যাবে। ক্ষেত্রে চিমটি যার নামে রেজিস্ট্রেশন করা তার নামে মোবাইল ফোনটি রেজিস্ট্রেশন হবে। আর যদি আপনি 30 শে জুনের পরে আনঅফিসিয়াল মোবাইল ফোন কিনে থাকেন তবে আপনাকে বিটিআরসির অফিশিয়াল পেজে গিয়ে আপনার ব্যবহৃত সিমটি যার নামে রেজিস্ট্রেশন করা তাঁর এনআইডি কার্ডের তথ্য দিয়ে আপনাকে ফোনটি রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

মোবাইলে কেমন সিম ব্যবহার করা যাবে

আপনার মোবাইল ফোনটি যার নামে রেজিস্ট্রেশন করা তার নামে রেজিস্ট্রেশনকৃত যেকোনো সিম আপনি মোবাইলটিতে ব্যবহার করতে পারবেন। অর্থাৎ আপনি ফোনটিতে একই নামে রেজিস্ট্রেশন কৃত একাধিক সিম ব্যবহার করতে পারবেন।

কিভাবে মোবাইল ফোনের রেজিস্ট্রেশন চেক করবেন

আনঅফিসিয়াল মোবাইলের রেজিস্ট্রেশন চেক করা একদমই সহজ। এর জন্য আপনাকে শুধু একটি মেসেজ করতে হবে। সবার প্রথমে আপনার মোবাইলে *#06#কাল করতে হবে। এতে করে আপনার মোবাইলের IMEI নম্বর বের হবে। এবার মোবাইলের মেসেজ অপশন থেকে KYD IMEI no. টাইপ করে সেন্ড করে দিন 16002 নম্বরে। এরপর বিটিআরসি থেকে আপনাকে মেসেজের মাধ্যমে মোবাইলের সকল বিস্তারিত জানিয়ে দেওয়া হবে।

আনঅফিসিয়াল ফোন বিক্রি করতে কি করতে হবে

সবার প্রথমে ফোনটি যার নামে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছিল তার নাম থেকে ফোনটির রেজিস্ট্রেশন কেটে দিতে হবে এজন্য আপনাকে বিটিআরসির অফিশিয়াল পেজে যেতে হবে এবং সেখান থেকে কাজটি করতে হবে। এরপর আপনি ফোনটি যাকে বিক্রি করবেন তার নামে রেজিস্ট্রেশন কৃত সিম ফোনে ভরে তারপর তার এনআইডি কার্ডের তথ্য বিটিআরসির অফিশিয়াল পেজে দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে।

সর্বশেষ কথা

আমরা প্রতিনিয়ত এসকল টিপস এন্ড ট্রিক্স সম্পর্কে আপনাদেরকে ধারণা দিয়ে থাকি। উপরের কোন বিষয় সম্পর্কে যদি আপনার প্রশ্ন থেকে থাকে তবে কমেন্ট এর মাধ্যমে প্রশ্নটিই করে যাবেন আমরা অতি দ্রুত আপনার প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন

আইপি কলিং অ্যাপের রিচার্জ এখন বিকাশে 2021

অনলাইনে টাকা আয় বিকাশে পেমেন্ট- অনলাইনে সহজে টাকা আয় করুন

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *