মোটা হওয়ার সহজ উপায় – জেনে নিন কি খেলে মোটা হওয়া যায়

মোটা হওয়ার সহজ উপায় – জেনে নিন কি খেলে মোটা হওয়া যায়

মোটা হওয়ার সহজ উপায় – অনেক মানুষ আছে যারা মোটা হতে চায়। কেননা চিকন স্বাস্থ্য তাদের পছন্দ না। মোটা হওয়ার জন্য তারা বিভিন্ন উপায় অবলম্বন করে থাকে। তাছাড়া অনেকে মোটা হওয়ার জন্য ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে থাকে। মোটা হওয়ার জন্য কিছু সহজ উপায় রয়েছে। আজকে আমি আপনাদের মোটা হওয়ার সহজ উপায় সম্পর্কে জানাবো। মোটা হওয়ার সহজ উপায় সম্পর্কে জানতে সম্পূর্ণ পোস্টটি ভাল করে পড়ুন।

মোটা হওয়ার সহজ উপায়

শরীর ফিট রাখা প্রতিটা মানুষেরই প্রথম ইচ্ছা। প্রতিটা মানুষই চায় তার শরীরকে ফিট রাখতে এবং সুস্বাস্থ্য থাকতে। তাই তারা নানা ধরনের উপায় অবলম্বন করে থাকে। আপনার যদি মোটা হওয়ার ইচ্ছা থাকে তবে প্রতিদিন সকাল 11 টায় একটি ডিম ও এক গ্লাস গরম দুধ খেয়ে তিন ঘন্টা করে ঘুমাবেন।

এভাবে আপনি দুই মাস নিয়ম কানুন মেনে চলুন। দেখবেন আপনি দুই মাসের মধ্যে মোটা হয়ে গেছেন। এ পদ্ধতিতে আমি নিজে সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হয়েছি। আপনি যদি মোটা হতে চান তাহলে এই পদ্ধতি অবলম্বন।

মোটা হওয়ার সহজ উপায় ঘরোয়া পদ্ধতিতে

খাবার গ্রহণ

যারা মোটা হতে চান তাদের বার বার খাবার গ্রহণ করতে হবে। আমাদের অনেকেরই জানা যে প্রতি দুই ঘণ্টা অন্তর আমাদের কিছু না কিছু খাওয়া প্রয়োজন। তবে যাদের শরীর ফিট তাদের জন্য কম খাওয়া প্রয়োজন।

কিন্তু যারা ওজন বৃদ্ধি করতে চাচ্ছেন তাদের দুই ঘন্টা পর পর বেশি করে খেতে হবে। এর জন্য আপনাকে দুধ, ডিম, ফল, সানা ইত্যাদি বেশি বেশি খেতে হবে। এগুলো বেশি বেশি খাওয়ার ফলে আপনার শরীরের পুষ্টির পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে এবং কি ওজন বৃদ্ধি পাবে।

বেশি ক্যালরি গ্রহণ

ওজন কমানোর ক্ষেত্রে আমরা ক্যালোরি ক্ষয় করে থাকি। এর জন্য আমাদের প্রচুর ব্যায়াম করতে হয়। তবে যখন আমরা ওজন বৃদ্ধি করতে চাই তখন দেহের পরিমাণ বৃদ্ধি করে থাকি। কেননা সরে ক্যালরির পরিমাণ বৃদ্ধি পেলে মানুষের ওজন বাড়তে থাকে। একজন মানুষের ওজন বাড়াতে প্রতিদিন 400 থেকে 500 কিলো ক্যালোরি খাবার বেশি গ্রহণ করতে হবে। এভাবে বেশি ক্যালোরি গ্রহণের ফলে আপনার ওজন বৃদ্ধি পাবে।

প্রোটিন গ্রহণ

প্রোটিন মানবদেহের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া প্রোটিন মানুষের স্বাস্থ্যের পরিবর্তন করে থাকে। সঠিকভাবে প্রোটিন গ্রহণ না করলে মানুষের স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয়ে থাকে। প্রোটিনযুক্ত খাবার যেমন ডিম , ডাল ও দুধ অবশ্যই মানুষের সুস্বাস্থ্যের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

 ড্রাই ফ্রুটস

ড্রাই ফ্রুট আমাদের অনেকেরই ড্রাই ফ্রুট খুবই পছন্দের। কেননা ড্রাই ফুড এর মধ্যে রয়েছে বাদাম, কিসমিস ও মধুর মত মজাদার খাবার। ড্রাই ফুড ওজন বৃদ্ধি করতে অনেক সহায়তা করে। প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে আপনি যদি কাজু বাদাম ও কিশমিশ খেয়ে থাকেন তাহলে তা আপনার শরীরকে ফিট রাখবে এমনকি ওজন বাড়বে। নেয়ামতের ড্রাইভ ফুডস খেলে দুই মাসের মধ্যে আপনার শরীরের ওজন বৃদ্ধি পাবে। তাই প্রতিনিয়ত ড্রাই ফুড খাওয়ার অভ্যাস করুন।

পরিমিত ঘুম

পরিমিত ঘুম শরীর ঠিক রাখতে খুবই প্রয়োজন। প্রতিদিন আপনাকে অবশ্যই আট ঘণ্টা ঘুমাতে হবে। যদি আপনি মোটা হতে চান তাহলে এর থেকে কম ঘুমানো যাবে না। তাছাড়া ঘুম থেকে উঠে আপনাকে প্রতিদিন ব্যায়াম করতে হবে। এতে আপনার শরীর ফিট থাকবে এবং ওজন বৃদ্ধি পাবে।

চকলেট

আমরা জানি যে চকোলেটে প্রচুর পরিমাণ চর্বি থাকে। তাই আপনি যদি কোনোদিন চকলেট খেয়ে থাকেন এটি আপনার শরীরকে মোটা করবে।

দ্রুত মোটা হওয়ার সহজ উপায়

আমরা জানি কোন কিছুই অতি তাড়াতাড়ি পাওয়া সম্ভব না। তাই আপনি যদি চান যে 7 দিনে আমি মোটা হবো তাহলে তা সম্ভব না। কেননা এত তাড়াতাড়ি মোটা হওয়া সম্ভব নয়। তাই মোটা হওয়ার জন্য আপনাকে নির্দিষ্ট সময় অপেক্ষা করতে হবে।

আপনি যদি স্থায়ীভাবে মোটা হতে চান তাহলে আপনাকে অন্তত দুই মাস সময় নিতে হবে। আর যদি অল্প দিনে মোটা হতে চান তাহলে আপনাকে রাসায়নিক কেমিক্যাল আমলকি প্লাস খেতে হবে। যা আপনার দেহের জন্য খুবই ক্ষতিকর।

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *