বিকাশে টাকা ইনকাম – ঘরে বসে টাকা ইনকাম করুন

বিকাশে টাকা ইনকাম – ঘরে বসে টাকা ইনকাম করুন

বিকাশে টাকা ইনকাম- বিকাশ এমন একটি অনলাইন ব্যাংকিং সিস্টেম যার নাম শোনেননি এমন লোক নেই বললেই চলে। অনলাইনের মাধ্যমে টাকা আদান প্রদানের জন্য বেশিরভাগ কাজই বিকাশ দিয়ে হয়ে থাকে। আজ আপনাদের জন্য আমরা সেই সব বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো, যার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই ঘরে বসে বিকাশ থেকে অনলাইন আর্নিং করতে পারবেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক বিকাশ থেকে অনলাইন এ্যার্নিং এর উপায় সমূহ।

ঘরে বসে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়

বিকাশ দিবর্তমান সময়ে আপনার জন্য সবদিক থেকেই পথ খুলে দেওয়া হয়েছে ঘরে বসে টাকা ইনকাম এর জন্য। যদি কেউ ঘরে বসে টাকা ইনকাম করার জন্য আগ্রহী হয়ে থাকে তবে চাইলেই সে ঘরে বসে টাকা ইনকাম করতে পারবে। ঘরে বসে টাকা ইনকাম এর জন্য চাই একটু দক্ষতা এবং কিছুটা পরিশ্রম। আমি যেভাবেই ঘরে বসে টাকা ইনকাম করো না কেন সেটা আর্টিকেল লিখে অ্যাড দেখে টাকা ইনকাম বা বিভিন্ন পদ্ধতিতে টাকা ইনকাম।

এসবের জন্য আপনার টাকা মূলত লেনদেন করার জন্য অবশ্যই একটি মোবাইল ব্যাংকিং দরকার পড়বে। আর সেজন্য আপনি বিকাশ অ্যাপটি খুবই সহজে কাজ করার জন্য বেছে নিতে। এটি মূলত ফাইন্যান্সিয়াল কাজটি লেনদেনের জন্য ব্যবহার হয়ে থাকে। চলুন আমরা পরবর্তী বিষয় নিয়ে আলোচনা করি। পরবর্তী বিষয়টি হচ্ছে বিকাশ দিয়ে টাকা আয় করার পদ্ধতি।

বিকাশ দিয়ে টাকা আয় করার পদ্ধতি

বিকাশ দিয়ে টাকা আয় করার পদ্ধতি হিসেবে, আপনি যদি বিকাশ এজেন্ট গ্রাহক হয়ে থাকেন তবে আপনি অতি সহজেই এর থেকে ইনকাম করতে পারবেন। বিকাশ গ্রাহকরা তাদের লেনদেনের মাধ্যমে কিছু পারসেন্টেন্স এর মাধ্যমে করে থাকেন।
ইনকাম করে থাকেন। বিকাশ এজেন্ট গ্রাহকরা যখন ক্যাশ আউট অথবা অ্যাড মানি এর মাধ্যমে বিকাশ থেকে কিছু পরিমাণ ইনকামিং করে থাকে। কিভাবে বিকাশ থেকে ইনকামিং করা যায়। তাছাড়া বর্তমান সময়ে শুধু বিকাশ এজেন্ট ইন হয় বিকাশ ইউজাররা ঘরে বসেই প্রচুর পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন অল্প কিছু টেকনিক এর মাধ্যমে। সেটি হল রেফার করে ইনকাম।

রেফার করে টাকা ইনকাম

বর্তমান সময়ে বিকাশ গ্রাহকরা খুব সহজে রেফার করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এফ আর এর মাধ্যমে নতুন একটি অ্যাকাউন্টের জন্য পেয়ে যাবেন ১০০ টাকা।

রেফার করে টাকা ইনকামের উপায়

প্রথমে আপনি আপনার স্মার্টফোনে থেকে থাকা বিকাশ অ্যাপটি লগইন করুন। অ্যাকাউন্ট লগইন এর পর আপনার বিকাশের অ্যাপেল ঠিক উপরের ডান কোনায় একটি বিকাশের পাখি আকৃতির চিহ্ন দেখতে পাবেন।সেখানে ক্লিক করুন। সেখানে ক্লিক করলে ডান দিকের একটা অংশ থেকে নতুন ইন্টারফেস চলে আসবে।

তারপর, আপনি সেখান থেকে রেফার বিকাশ অ্যাপ অপশনটি সিলেক্ট করুন।রেফার অপশনটি সিলেক্ট করার পর আপনাকে নতুন একটি ইন্টারফেস এ নিয়ে যাওয়া হবে, সেখানে আপনি (১০০ টাকা বোনাস পেতে রেফার করুন) এমন অপশনটি দেখতে পাবেন। সেই সাথে নিজে একটি অপশন পাবেন রেফার করুন, একটি তীর চিহ্ন সহকারে।

সেখানে ক্লিক করলে আপনার বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া গুলো অপশন চলে আসবে। অপশন চলে আসার পর আপনি যার মোবাইলে বা যাকে রেফার করতে চান, তাকে লিংকটি সেন্ড করুন। অতঃপর সে যদি আপনার লিংক থেকে বিকাশ অ্যাপটি ডাউনলোড করে এবং লগইন করে লেনদেন করে থাকে তবে আপনি ১০০ টাকা বোনাস পেয়ে যাবে।

আরো পড়ুন: কিভাবে ফেসবুক থেকে টাকা আয় করা যায়

সেই সাথে নতুন ইউজার হিসেবে অ্যাপ ডাউনলোড কারী ব্যক্তিটি ২৫ টাকা বোনাস পেয়ে যাবেন। তখন যদি তিনি ২৫ টাকা নিজের মোবাইলে লোড দিয়ে দেয়, তবে তিনি আরও ৫০ টাকা বোনাস পাবেন। উক্ত মাধ্যমে খুব সহজেই রেফার করেই ইনকাম করা যায়।

আপনি যদি দিনে পাঁচটি নতুন বিকাশ অ্যাপ এ নিয়মে খুলতে পারেন তবে খেয়াল করুন আপনি ৫০০ টাকা তো পাবেন সেই সাথে নতুন ইউজার গুলো জনপ্রতি ৭৫ টাকা করে ইনকাম করতে পারবে । সেই সাথে আপনি যদি দুইবার পে-বিল করে থাকেন তবে ২৫ টাকা বোনাস পাবে।

তাহলে নতুন গ্রাহকদের বোনাসের সংখ্যা দাঁড়াবে ১০০ টাকা। অনেকে পে-বিল করতে ইচ্ছা পোষণ করে না। তারা কমপক্ষে ৭৫ টাকা পেয়ে যাবেন।আমাদের নিচে দেওয়া লিঙ্ক থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করলে আপনি ৭৫ টাকা পাবেন ।

প্রবাসীদের মাধ্যমে বিকাশ থেকে ইনকাম

আমরা যদি বিকাশ এজেন্ট ও বিশ্বস্ত প্রবাসী থেকে থাকে তবে আপনি আপনি অতি সহজেই বাংলাদেশের যে কোন প্রান্ত থেকেই প্রচুর অর্থ ইনকাম করতে পারবেন। প্রবাসীদের মাধ্যমে বিকাশ থেকে আয় এর বিষয়টি অনেকের কাছে নতুন লাগতে পারে। আবার অনেকের কাছে পুরাতন। চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে আপনি প্রবাসীদের মাধ্যমে বিকাশ থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

প্রবাসীদের মাধ্যমে বিকাশ থেকে ইনকাম করার উপায় বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ থেকে প্রচুর মানুষ অথবা অর্জনের উদ্দেশ্যে বিদেশে পা রেখে থাকেন। বেশিরভাগ প্রবাসীরা চান নিজের পরিবারকে অতি দ্রুত মাধ্যমে ইনকামের টাকাটা পৌঁছে দিতে। তখন একজন আরেকজনকে জিজ্ঞেস করে থাকে যে তার কোনো রিলেটিভ বা আত্মীয় বিকাশের মাধ্যমে তার পরিবারকে দিতে পারবেন কিনা।

 

আরো পড়ুন: বিকাশে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করার নিয়ম ও বিল চেক

তো দ্বিতীয় প্রবাসীদের যদি কোন বিকাশ এজেন্ট ব্যবহারকারী আত্মীয় থেকে থাকে তবে তার মাধ্যমে টাকা প্রদান করতে পারবেন। পরবর্তীতে প্রদান করা টাকা টি সেই গ্রাহক প্রবাসে থেকে থাকা আত্মীয় কাছ থেকে নিতে পারবেন। মূলত ওইভাবেই প্রবাসীদের মাধ্যমে বিকাশ থেকে টাকা অতি সহজেই দেশে পাঠিয়ে ইনকাম করা যায়।

বিকাশ রিওয়ার্ড থেকে টাকা ইনকাম

অল্প কিছুদিন আগে বিকাশে একটি নতুন অপশন এড হয়েছে। অপশনটি হচ্ছে বিকাশে ওয়ার্ড। আপনি চাইলে বিকাশ এইবার থেকেও টাকা ইনকাম করতে পারবেন। যদিও এর থেকে টাকা ইনকাম করা একটু সময় সাপেক্ষ বা স্বল্পতা পরিমাণ তবুও অনেক সময় এটি কার্যকরী হয়ে থাকে।
এটি মূলত টাকা-পয়সা লেনদেনের মাধ্যমে সম্পাদন করা হয়ে থাকে। টাকা-পয়সা লেনদেনের মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট পয়েন্ট আপনাকে দেওয়া হয়, তারপর একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ পয়েন্টের জন্য আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ দিয়ে থাকে যাকে আমরা রিওয়ার্ড বলে থাকি।

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *