দায়িত্ব নিয়ে উক্তি, ইসলামিক কিছু কথা, স্ট্যাটাস ও ক্যাপশন

দায়িত্ব নিয়ে উক্তি, ইসলামিক কিছু কথা, স্ট্যাটাস ও ক্যাপশন

আমাদের প্রত্যেকেরই উচিত নিজেকে একজন দায়িত্ববান ও কর্তব্য পরায়ণ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা। কারণ দায়িত্ব ও কর্তব্য বিমুখ মানুষ কখনই প্রকৃত মানুষ হতে পারে না। এজন্য প্রত্যেক মানুষ নিজেকে দায়িত্ববান হিসেবে গড়ে তোলা। আর আজকের এই পোস্টে আমি নিয়ে এসেছি দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ একটি পোস্ট। আপনারা যদি দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে জানতে চান তবে আমার দেওয়া পোস্টটি ভালভাবে পড়ুন। আজকের এই পোস্টের আমি দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে এমন কিছু উক্তি, ইসলামিক কথা, স্ট্যাটাস দিয়ে দিয়েছি যা প্রত্যেকের জন্যই খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আর আপনি যদি এই গুরুত্বপূর্ণ উক্তি গুলো পেতে চান তাহলে আমার দেওয়া পোস্টটি অবশ্যই প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত পড়বেন।

এই পৃথিবীতে কেউই তার দায়িত্ব কে এড়িয়ে চলতে পারবে না। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মানুষকে তার উপর অর্পিত সকল দায়িত্ব পালন করে যেতে হবে। মানুষ জন্মের পর থেকে আস্তে আস্তে বড় হতে থাকে এবং এই ছোট থেকে বড় হওয়ার সময় মানুষকে নানা ধরনের দায়িত্ব-কর্তব্যের সম্মুখীন হতে হয়। যেমন; পরিবারের প্রতি দায়িত্ব, সমাজের প্রতি দায়িত্ব, রাষ্ট্রের প্রতি দায়িত্ব ইত্যাদি এই দায়িত্বগুলো মানুষ চাইলেও এড়িয়ে চলতে পারে না। তাহলে চলুন আর দেরি না করে এই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সম্পর্কে কিছু উক্তি ইসলামিক কথা জেনে নেয়া যাক।

দায়িত্ব নিয়ে উক্তি

আহারে প্রত্যেকেই দায়িত্বশীল হওয়া উচিত। আরে জন্য আমি আমার আজকের এই পোস্টে খুবই গুরুত্বপূর্ণ কিছু উক্তি নিয়ে হাজির হয়েছি। আর এই দায়িত্ব আমাদের জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। যা আমরা চাইলেও কেউ সহজে এড়িয়ে যেতে পারি না। কারণ এটি আমাদের জীবনে খুবই আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে থাকে। ব্যক্তি যত খারাপই হোক না কেন তবুও তার কিছু না কিছু দায়িত্ব হলেও পালন করতে হয়। অনেক খারাপ ব্যক্তির আছে যারা তাদের দায়িত্ব পালন করে কিন্তু এই দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ভুল পথ বেছে নেই। যার কারণে সেই ব্যক্তি কখনো সুখী হতে পারেনা। তাই অবশ্যই আমাদের সঠিক পথ অবলম্বন করে নিজেদের দায়িত্ব পালন করতে হবে তবে প্রকৃত মানুষ হও।

>প্রত্যেক মানুষেরই উচিত যে জিনিসের উপর নির্ভরশীল সেই জিনিসটি প্রতি সুন্দরভাবে নিজের দায়িত্ব পালন করা এবং সেই জিনিসটার প্রতি যত্নবান হওয়া। তবে জীবনে সফলতা আসবে।

>জন ডি. রকফেলার বলেন – আমি বিশ্বাস করি যে প্রত্যেকটি সম্পক আমাদের দায়িত্ব, প্রতিটি সুযোগ একটি বাধ্যবাধকতা, প্রতিটি অধিকার একটি কর্তব্য বোঝায়।

>একজন সুনাগরিক হতে হলে অবশ্যই তাকে পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের প্রতি দায়িত্বশীল হতে হবে।

>তবে একজন শ্রমবিমুখ মানুষ কখনো নিজের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে পারে না।

>আমাদের প্রত্যেকেরই উচিত নিজেকে দায়িত্বশীল ও কর্তব্য পরায়ন হিসেবে গড়ে তোলা যাতে তার পরিবার সমাজ ও রাষ্ট্রের কল্যাণ সাধিত হয়।

>হেনরি ডেভিড থোরিও বলেন – একজন মানুষ নিজের সাথে অভিনয় করতে হলে পুরোপুরি স্বাধীন হতে হবে ; তা না হলে দায়িত্ববোধ ও আত্ম-সম্মান দুটোই হারাতে পারে ।

>জন সি ম্যাক্সওয়েল বলেন – দায়িত্ববোধ একটি বুদ্ধিমান পরিপূর্ণ নেতৃত্বের সুস্পষ্ট লক্ষন ।

>আব্রাহাম লিঙ্কন বলেন – আপনি আজ এড়িয়ে গিয়ে কালকের দায়িত্ব থেকে বাঁচতে পারবেন না।

>হেলেন কিলার বলেন – যতক্ষণ না জনগণের বিশাল একটি অংশ একে অপরের কল্যাণের জন্য দায়িত্ববোধ হবে না, ততক্ষণ পর্যন্ত সামাজিক ন্যায়বিচার পাওয়া যাবে না।

পরিবারের দায়িত্ব নিয়ে কিছু কথা

সাধারণত মা-বাবা, ভাই বোন, দাদা দাদি ইত্যাদি নিয়ে একটি পরিবার গঠিত হয়। প্রত্যেকটি মানুষই কোন না কোন পরিবার থেকেই জন্মগ্রহণ করে। আমরা সকলেই মা-বাবার সন্তান এটাই চরম সত্য। এই সত্যকে আজ পর্যন্ত কেউ পাল্টাতে পারেনি আর পারবেও না আর কেউ পাল্টানোর চেষ্টাও করবে না এই সত্যকে। তবে পরিবারের মধ্যে মা-বাবার অবদান সবচেয়ে বেশি থাকলেও অন্য সকলের অবদান থাকে। তাই আমাদের প্রত্যেকেরই উচিত পরিবারের প্রত্যেকের দায়িত্ব সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে পালন করা। কারণ একটি পরিবারই যখন তাদের পরিবারের একটি ছোট্ট সদস্য জন্মগ্রহণ করে তখন তারা কতটা আদর ভালোবাসা দিয়ে এবং দায়িত্ব সাথে তাদের সন্তানটিকে মানুষের মতো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলে।

তাই এক কথায় বলা যায় পরিবার একটি অপরিহার্য সম্পদ। যার প্রতি আমাদের অবশ্যই যথাযথভাবে দায়িত্ব ও কর্তব্য পালন করতে হবে কখনও দায়িত্ব ও কর্তব্য বুলক হলে চলবে না। পরিবারের দায়িত্ব নিয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা জেনে নেয়া যাক।

>ব্র্যাড হেনরি –  পরিবার হলো দিক নির্দেশক যা আমাদের পরিচালিত করে। এটা হলো দুর্দান্ত উচ্চতায় পৌঁছানোর অনুপ্রেরণা এবং আমাদের সান্ত্বনা যখন আমরা মাঝে মাঝে ব্যার্থ হই ।

>চাণক্য চাণক্য – একটিমাত্র পুষ্পিত সুগন্ধ বৃক্ষে যেমন সমস্ত বন সুবাসিত হয়, তেমনি একটি সুপুত্রের দ্বারা সমস্ত কুল ধন্য হয়।” একটি কুবৃক্ষের কোটরের আগুন থেকে যেমন সমস্ত বন ভস্মীভূত হয়, তেমনি একটি কুপুত্রের দ্বারাও বংশ দগ্ধ হয়।

>ফ্রিডরিচ নিটশে – পারিবারিক জীবনে প্রেম হল তেল, যা ঘর্ষণকে সহজ করে দেয়, সিমেন্ট যা একে অপরের নিকটে আবদ্ধ হয় এবং সংগীত যা সাদৃশ্য নিয়ে আসে ।

>গিলবার্ট কে – পরিবারই একমাত্র জিনিস যা মুক্ত মানুষ নিজের জন্য এবং নিজের দ্বারা তৈরি করে।

>অনিতা বাকের – আপনার ভাগ্য সন্ধানের জন্য আপনি বাসা ছেড়ে চলে যান এবং আপনি যখন এটি পেয়ে যান তবে আপনি বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সাথে ভাগ করে নেন ।

দায়িত্ব নিয়ে ইসলামিক কিছু কথা

ইসলাম মানেই হচ্ছে শান্তির ধর্ম । ইসলাম ধর্মে কঠোরভাবে দায়িত্ব পালনের কথা বলা হয়েছে । এই দায়িত্ব পালন নিয়ে কোরআনে অনেক আয়াত রয়েছে । এমনকি মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নিজেও দায়িত্ব পালন নিয়ে অনেক কথা বলেছেন । আপনি যদি দায়িত্ব পালন নিয়ে এক গুরুত্বপূর্ণ কথা গুলো জানতে চান তাহলে আমারতো পুষ্টি ভালভাবে পড়ুন । কারণ আজকের এই পোস্টে আমি দায়িত্ব পালন নিয়ে বিভিন্ন ধরনের উক্তি দিয়ে দিয়েছি ।এমনকি ইসলামিক উক্তি দিয়ে দিয়েছে । যারা আজকের এই ইসলামিক উক্তি গুলো পেতে চান তারা অবশ্যই পুরো পোস্টটি পড়ুন ।

> তুমি দায়িত্ব চেয়ো না। কেননা যদি তোমাকে তোমার চাওয়ার কারণে দায়িত্ব দেওয়া হয়, তাহলে তোমাকে নিঃসঙ্গ ছেড়ে দেওয়া হবে।  পক্ষান্তরে যদি তা না চাইতেই তোমাকে দেওয়া হয় তুমি সে বিষয়ে (আল্লাহর পক্ষ হতে) সাহায্যপ্রাপ্ত হবে।

>আবু মুসা আশআরি (রা.) থেকে বর্ণিত –  দু’ ব্যক্তি রাসূল (সা.)-এর কাছে দায়িত্ব চাইলে তিনি তাদেরকে বললেন, আল্লাহর কসম, আমরা এমন কাউকে কর্মকর্তা নিযুক্ত করব না, যে দায়িত্ব চায় এবং এমন ব্যক্তিকেও নয়, যে দায়িত্ব লাভের আকাঙ্খা করে।’

> অর্থাৎ দায়িত্ব চেয়ে নেওয়া যাবে না। আপনাকে আল্লাহ প্রদত্ত যতটুকু দায়িত্ব দেয়া হয়েছে ততটুকুই পালন করতে হবে এবং ততটুকুতেই আপনার কল্যাণ লিখিত হয়েছে।

> আল্লাহ আপনাকে ইসলামের সবচেয়ে প্রধান দায়িত্ব ও কর্তব্য দিয়েছেন যেটি সেটি হল  – আল্লাহর এবাদত করা অর্থাৎ আল্লাহ তাআলা ইসলামের যে সকল বিধান দিয়েছেন  তা যথাযথভাবে পালন করা দায়িত্ব ও কর্তব্যের সাথে।

> কুরআন মজিদে আছে –  আল্লাহ তা’আলা বলেন তোমরা তোমাদের চুক্তি সমূহ সম্পন্ন কর। – সূরা আল

Read More

ভালবাসার রোমান্টিক এসএমএস , স্ট্যাটাস

ভালোবাসার কষ্টের কবিতা – রোমান্টিক প্রেমের কবিতা

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *