টাকা ছাড়া ব্যবসা – প্রতিমাসে ১ লক্ষ টাকা আয় করুন

টাকা ছাড়া ব্যবসা – প্রতিমাসে ১ লক্ষ টাকা আয় করুন

টাকা ছাড়া ব্যবসা – আপনাদের হয়তো শুনে হাসি হাসতে পারে তবুও এটা সত্য যে টাকা না থাকলেও ব্যবসা শুরু করা যায়। যদিওবা পথটা এতটা সহজ নয় তবুও টাকা ছাড়া ব্যবসা করা যায়। আপনি যদি চান তবে আপনিও টাকা ছাড়া ব্যবসা শুরু করতে পারেন। অনেকের ছোটবেলা থেকেই আগ্রহ থাকে সে ব্যবসা করবে কিন্তু তার টাকা না থাকায় সে ব্যবস্থা করতে পারনা। যদি আপনি হচ্ছে তাদের মধ্যে একজন হন তবে এই পোষ্ট টি আপনার জন্য। কেননা এখন আমরা আপনাদেরকে জানাবো কিভাবে টাকা ছাড়া ব্যবসা করতে হয়।

আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছে যাদের ছোট বেলা থেকে স্বপ্ন থাকে যে আমি বড় হয়ে একজন বড় বিজনেসম্যান হব। কিন্তু আমরা বড় হয়ে টাকা না থাকায় ভাবি আমাদের দ্বারা ব্যবসা করা হবে না। কিন্তু আমরা আজ আপনাদেরকে সেই কথাটি বুঝিয়ে দিতে এসেছি যে টাকা ছাড়া ব্যবসা করা যায়

তবে টাকা ছাড়া ব্যবসা করে সফল হতে হলে প্রচুর পরিশ্রম করতে হবে। ব্যবসায় ধৈর্য হারা হলে চলবে না।  ধৈর্য ধারণ করে আপনাকে ব্যবসায় টিকে থাকতে হবে। তবে আপনি একজন সফল ব্যবসায়ী রুমে প্রতিষ্ঠিত হতে পারবেন।

টাকা ছাড়া ব্যবসা

আমাদের এই কথাটি শুনে হয়তো আপনারা অনেকেই হাসতে পারেন তবে এটি সত্যি। যদি আপনি টাকা ছাড়া ব্যবসা শুরু করতে চান তবে কিছু স্টেপ ফলো করতে হবে। সেইস্টার নিয়মকানুনগুলো আমরা নিচে আপনাদেরকে জানাতে চলেছি। তাই যদি আপনি টাকা ছাড়া ব্যবসা শুরু করতে চান তবে আপনি আমাদের সাথেই থাকুন এবং আমাদের পোস্টটি পড়ুন। আর দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক কিভাবে টাকা ছাড়া ব্যবসা করা যায়:

ব্যবসা পরিকল্পনা

টাকা ছাড়া ব্যবসা করতে হলে সবচেয়ে প্রধান উপায় হচ্ছে ব্যবসা শুরুর পূর্বে তা নিয়ে পরিকল্পনা করা। প্রথমে ভাবতে হবে আপনি কি ধরনের ব্যবসা করবেন এবং সেই ব্যবসায় আপনি কি ধরনের পণ্য বিক্রি করবেন। সেই পণ্য কিনতে আপনার বা তৈরি করতে কত টাকা খরচ পড়বে। তারপর সেটা মালামাল পরিবহন করতে এবং আপনার এক কোম্পানি দাঁড় করাতে বা ব্যবসা দাঁড় করাতে আর কত টাকা লাগবে।

সবকিছু পরিকল্পনা করে সেই পর্নটিউব মূল্য ফিক্সট করতে হবে। তারপর সেই মূল্য ফিক্সট করে আপনার কত টাকা ব্যয় হবে সেটা নির্ধারণ করতে হবে। এভাবে আপনি আপনার ব্যয় নির্ধারণ করে তার সাথে কিভাবে কমানো যায় সেটা খুঁজতে থাকবেন। এভাবে আপনি খুব অল্প টাকার বিনিময়ে টাকা ছাড়াই বলা যায় ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

আপনারা হয়তো ভাবছেন যে আমি টাকা ছাড়া ব্যবসা কিভাবে করব সে সম্পর্কে জানতে চেয়েছি। তবে এখানে টাকার কথা কেন বলা হচ্ছে পরিকল্পনাতে। আসলে আমরা বলতে চেয়েছি যে টাকা আপনার কাছে নেই। তবে আপনি অন্য কোথাও থেকে টাকাপয়সা হালকা কিছু বা কম করে কিছুই নেই তাদের কিভাবে ব্যবসা করবে।

বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা

ব্যবসায়ের প্রতিযোগিতা সম্পর্কে ধারণা

ব্যবসা শুরুর পূর্বে জানতে হবে আপনি যে পন্যটি বিক্রি করবেন। সে পণ্যটি আরো বিক্রি করে এরকম অন্য সকল ব্যবসায়ী কে কে আছে এবং তাদের বিস্তারিত জানতে চেষ্টা করবেন। জানতে চেষ্টা করবেন তারা পণ্য কত দামে বিক্রি করছে এবং কী ধরনের পণ্য।

আপনি চেষ্টা করবেন যে তাদের চেয়ে কমে আরো ভালো পণ্য বিক্রি করা। এতে করে কি হবে আপনার প্রতিযোগিতামূলক বাজারে আপনি অনেক এগিয়ে যেতে পারবেন। এর ফলে আপনি খুবই দ্রুত সফল হয়ে যেতে পারবেন।

জনবলের পেছনে খরচ

কোন একটি ব্যবসা শুরু করলে আপনার অনেক জনবলের প্রয়োজন হতে পারে। কিন্তু এই জনবলের পেছনে কিভাবে টাকা কম খরচে করা যায় সে সম্পর্কে আপনাকে ভাবতে হবে। এর জন্য আপনাকে অবশ্যই বেশি পরিশ্রম করে যতটা সম্ভব টাকা সেভ করা যায় তা করতে হবে।

যেখানে জনবল দুজন লাগবে সেখানে একজন বাদ দিয়ে সেখানে আপনি কাজ করবেন। এতে করে আপনার অনেক টাকা সেভ হবে। তাই আপনাকে সবসময় চেষ্টা করতে হবে কিভাবে কম জনবল এর মাধ্যমে কাজ করা যায়। আর এভাবে আপনি কম জনবল খাটিয়ে টাকা সেভ করতে পারেন।

সহজ ও কম খরচে ব্যবসার সম্পর্কে দক্ষতা অর্জনের সুযোগ খোজা

ব্যবসা করতে হলে অনেক সময় নতুন নতুন বিভিন্ন ধরনের কিছু এসে যায় বাজারে। তখন সে সম্পর্কে ধারণা পেতে আপনাকে নতুন নতুন কিছু শিখতে হয়। সেগুলো আপনাকে দক্ষ হতে হবে। তবে আপনি আপনার ব্যবসাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন। এই দক্ষতা অর্জনের জন্য অনেক সময় প্রচুর টাকা ব্যয় হতে পারে।

তখন চেষ্টা করতে হবে কিভাবে এটা কম খরচে করা যায়। কম খরচের বিনিময় কিভাবে আপনি ব্যবসার নতুন কোন বিষয় সম্পর্কে দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন খুব সহজে। আর খুব কম খরচে দক্ষতা অর্জন করতে হলে আপনাকে অবশ্যই প্রচুর থেকে প্রচুর পরিমাণে পরিশ্রম করতে হবে। এভাবে আপনি আপনার ব্যবসায় এর খরচা অনেক কমাতে পারবে।

নিজের সম্পদগুলোকে ব্যবসায় খাতে ব্যবহার করা

টাকা ছাড়া ব্যবসা করতে হলে আপনাকে অবশ্যই আপনার কাছে যা কিছু আছে তাই আপনার ব্যবসায় খাতে ব্যবহার করতে হবে। যেমন ধরুন আপনি যে ঘরটিকে আপনার ঘুমানোর ঘরে হিসেবে ব্যবহার করেন শেখর টিকে আপনি আপনার ব্যবসার ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন। শেখর টিকে আপনি আপনার ব্যবসার গুদামঘর হিসেবেও রূপান্তর করতে পারেন।

খাটের একপাশে আপনার শোয়ার জন্য রেখে বাকি সব জায়গায় ব্যবসার পণ্য রাখতে পারেন। এমনকি খাটের তলায় পরিষ্কার করে সেখানেও আপনি পণ্য রাখতে পারবেন। এভাবেই আপনি আপনার সম্পদগুলোকে ব্যবসা খাতে ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনার টাকার খরচ কমাতে পারবেন। এতে করে আপনি কম টাকায় ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

স্বল্প পরিমাণে লোন নেওয়া

যেহেতু এটি বিনা টাকায় ব্যবসা শুরু করার মত । তাই এই ব্যবসাটি শুরু করার পূর্বে আপনাকে অবশ্যই আপনার আত্মীয়-স্বজন অথবা বিভিন্ন মাধ্যম থেকে অল্প কিছু পরিমাণ লোন নিতে হবে। অল্প কিছু টাকা লোন নেবেন বেশি কিন্তু নয়। এমনকি সেই লোন নেওয়া টাকা গুলো খুব ভেবেচিন্তে ব্যবহার করবেন ভাবে করবেন।

যেমন আপনার আত্মীয়-স্বজন পাড়া-প্রতিবেশী কেউ যদি প্রচুর টাকার মালিক হয় তখন আপনি তার কাছ থেকে কিছু টাকা ধার নিতে পারেন। যদি এরকম কেউ না থাকে তবে আপনি আপনার আশেপাশে কোন সংগঠন বা এনজিও বা ব্যাংক থেকে স্বল্প কিছু টাকা লোন নিতে পারেন। এই টাকা আপনি আপনার ব্যবসায় ব্যবহার করে আপনার ব্যবসাকে প্রচুর মতি করতে পারবেন।

ক্রেতার আস্থা অর্জন করা

বিনা টাকায় ব্যবসা শুরু করলে আপনাকে অবশ্যই ক্রেতারা আস্থা অর্জন করতে হবে। তবে আপনি আপনার ব্যবস্থাটিকে এগিয়ে নিতে পারবেন। তারা যদি আপনার কাছ থেকে পণ্য কিনে আস্থা অর্জন করে তবে তারা আবার দ্বিতীয়বার আপনার কাছে কিছু কিনতে আসবে। এভাবে আপনি পন্য বিক্রি করতে করতে আস্তে আস্তে আপনার ব্যবসাকে অনেক বড় করতে পারবেন।

যদি ক্রেতাদের আপনার উপর আস্থা না থাকে তবে আপনি তাদেরকে দ্বিতীয়বার পণ্য বিক্রি করতে পারবেন না। ফলে আপনার ব্যবসায় লোকসান হওয়ার চান্স থাকবে। তাই এ ধরনের ব্যবসা শুরুর প্রথমে আপনাকে অবশ্যই ক্রেতাদের আস্থা অর্জন করতে হবে। তবে আপনি আপনার ব্যবসায় সফল হতে পারবেন।

এই ছিল কিভাবে টাকা ছাড়া ব্যবসা শুরু করা যায় সে সম্পর্কে আমাদের সকল ধারণা। আপনি চাইলে আমাদের এই সম্পূর্ণ আর্টিকেলটির নিয়ম-কানুন এবং সবকিছু পুরোপুরি বুঝে মেনে ব্যবসা শুরু করতে পারেন। তাহলে আপনি সফল হতে পারবেন। তবে মনে রাখতে হবে আপনাকে অবশ্যই যে ধৈর্য হারা হলে চলবে না এবং গ্রাহকদের সাথে অবশ্যই ভালো ব্যবহার করতে হবে। এই ধরনের ব্যবসা করলে আপনাকে প্রচুর পরিশ্রমই হতে হবে।

আমাদের এই আর্টিকেলটি বিষয়ে যদি আপনার কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তবে আমাদের কমিটির মাধ্যমে আপনি জানাতে পারেন। আমরা অতি দ্রুত আপনার প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

Link –১০ + ইউনিক বিজনেস আইডিয়া

ছাত্রদের জন্য ১০ + ব্যবসা আইডিয়া

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *