গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া – ১০+ ব্যবসার আইডিয়া

গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া – ১০+ ব্যবসার আইডিয়া

গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া – আপনাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছে যারা গ্রামে বাস করেন। তারা অনেক সময় গ্রামে কিভাবে ভালো ধরনের লাভজনক ব্যবসা করা যায় সে সম্পর্কে জানতে চেষ্টা করেন। আজকে আমরা একটি নতুন আর্টিকেল নিয়ে চলে আসলাম কিভাবে আপনারা গ্রামে একটি লাভজনক ব্যবসা শুরু করবেন।

আমাদের দেশ বর্তমানে অনেক আধুনিক হয়ে গেলেও এখন অনেক জায়গা রয়েছে যে সকল জায়গা শহর থেকে অনেক দূরে অবস্থিত। সে সকল জায়গায় বিভিন্ন ধরনের আধুনিক সুযোগ-সুবিধা পৌঁছায় না। তাই আপনি চাইলে সেখানে খুব সহজ একটি ভালো ধরনের ব্যবসা শুরু করতে পারে।

Link – ব্যবসা করার নিয়ম – ১০+ সফলভাবে ব্যবসা করার নিয়ম

আপনি যদি বিভিন্ন ধরনের আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন একটি ব্যবসা শুরু করেন। আপনার আশে পাশের গ্রামে তবে আপনি দেখবেন আপনার ব্যবস্থা খুব তারাতারি সহজ ভাবে দাঁড়িয়ে গেছে। আর গ্রামে বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা করার অনেক সুযোগ সুবিধা রয়েছে।

এখানে ব্যবসা করার বা ব্যবসা সিলেক্ট করার অনেক ধরনের উপায় রয়েছে। চাইলে আপনি বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা করতে পারেন। তাই আজ আমরা আপনাকে সবচেয়ে লাভজনক কয়েকটি ব্যবসা সম্পর্কে বলবো।

গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া

আপনি যদি গ্রামে ব্যবসা করার মত কোন আইডিয়া খুঁজতে থাকেন তবে আপনি ঠিক জায়গায় এসেছেন। কারণ আমরা এবার গ্রামে ব্যবসা করার মতো বিভিন্ন আইডিয়া সম্পর্কে আপনাদেরকে ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করব। তাই আপনি যদি চান গ্রামে ভালো একটি লাভজনক ব্যবসা শুরু করতে হবে অবশ্যই আমাদের এই পোস্টটি আপনি মনোযোগ দিয়ে দেখুন। তো চলুন আর দেরি না করে  জেনে নেওয়া যাক গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া গুলো সম্পর্কে:

1.কাঁচামাল এর ব্যবসা

গ্রামে ব্যবসা করার মত সবচেয়ে সেরা একটি ব্যবস্থা হল কাঁচামালের ব্যবসা। কাঁচামালের ব্যবসা হচ্ছে গ্রামে থেকে করার মতো সবচেয়ে একটি বড় উপযুক্ত ব্যবস্থা। এটিই হচ্ছে এমন একটি ব্যবসা যাতে আপনি খুব কম ইনভেস্টমেন্টে মোটা অংকের টাকা আয় করতে পারবেন।

বর্তমানে শহর অঞ্চলের মানুষ শাকসবজির জন্য বা কাঁচামালের জন্য গ্রামের মানুষের উপর নির্ভর করে। কেননা শহরে এতটা শাকসবজি পাওয়া যায়না এসকল শাকসবজি গ্রাম থেকে আসে। তাই আপনি চাইলে নিজে গ্রামে চাষাবাদ করে অথবা গ্রামের চাষিদের থেকে শাক সবজি কাঁচা মাল কিনে। তা শহরে নিয়ে বিক্রি করতে পারেন। এতে করে আপনি খুব কম টাকার বিনিময় কাঁচামাল কি নেতা শহরে অনেক দামে বিক্রি করতে পারবেন।

2.হস্তশিল্পের ব্যবসা

হস্তশিল্প হচ্ছে একটি শৌখিন কাজ। এ ধরনের কাজের তৈরি জিনিসপত্র সাধারণত শহরের মানুষ কিনে থাকে। কারণ শহরের মানুষের সকল কাজ ভালোভাবে করতে পারেনা। তাই তারা এই কাজের জিনিস গুলো কিনে থাকে।

তাই আপনি যদি শহরের মানুষের কাছে বিক্রি করার জন্য আপনার আশেপাশের গ্রামের কারিগর এর কাছ থেকে কিংবা আপনি যদি নিজে তৈরি করতে পারেন তবে তো আরো ভালো হয়। সে পণ্যগুলো আপনি শহরে নিয়ে গিয়ে পাইকারি অথবা খুচরা দামে বিক্রি করে দিতে পারবেন। এভাবে আপনি খুব কম টাকার বিনিময়ে অনেক টাকা আয় করতে পারবেন।

3.গরু-ছাগল ও হাঁস-মুরগি পালন

গরু ছাগল হাঁস মুরগি পালনে বর্তমানে প্রচুর পরিমানে আয় হয়ে থাকে। আর গ্রামে থেকে গরু -ছাগল ও হাঁস -মুরগি পালন করা অনেক সহজ। আপনি চাইলে গ্রামে গরু ছাগল অথবা হাঁস-মুরগির খামার দিয়ে নিতে পারেন ।

গ্রামে গরু – ছাগল , হাঁস-মুরগি পালনের জন্য যেসকল জিনিসপত্রের প্রয়োজন হয় সব জিনিসপত্র খুবই সহজলভ্য। যার ফলে গ্রামের হাঁস-মুরগী পালন করা ও গরু ছাগল পালন করা অনেক খরচ কম হয়। গরু ছাগলের দুধ ও হাঁস-মুরগির ডিম খুবই লাভজনক একটি বস্তু। এসবের দাম বর্তমানে খুবই বেশি রয়েছে। তাছাড়া সকল প্রাণীর মাংস মানুষ খায় যার দাম অনেক বেশি।

তাই আপনি চাইলে আপনার গ্রামে একটি গরু ছাগল অথবা হাঁস-মুরগির খামার দিয়ে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। তবে এই ব্যবসায় কিছুটা ইনভেসমেন্ট এর প্রয়োজন হয়। যদি ভালোভাবে ইনভেস্ট করতে পারেন তবে আপনি অনেক টাকা আয় করতে পারবে।

4.ফার্মেসি ব্যবসা

গ্রাম হচ্ছে এমন একটি এলাকা যেসব এলাকায় ডাক্তারি সেবা খুবই কমই রয়েছে। এমনকি সেখানে ওষুধপত্র খুব কম পাওয়া যায়। তাই আপনি চাইলে সেখানে একটি ওষুধের দোকান দিতে পারেন। তবে কাজের জন্য আপনাকে অবশ্যই শিক্ষিত হতে হবে।

গ্রাম হচ্ছে শহর থেকে অনেক দূরে অবস্থিত সকল এলাকা। সেসব এলাকায় বিভিন্ন ধরনের সুযোগ-সুবিধা কম থাকায় সেখানে ওষুধ পাওয়া যায়। তাই আপনি চাইলে সেখানে যদি একটি ওষুধের দোকান দিয়ে নিতে পারেন তবে আপনার এই ব্যবসাটি অনেক উন্নতি লাভ করবে। তবে এ ব্যবসার একটি সমস্যা হল আপনাকে অবশ্যই শিক্ষিত হতে হবে এবং ভালো রকমের টাকা ইনভেস্ট করতে হবে।

5.মুদির দোকান ব্যবসা

মুদির দোকান হচ্ছে এমন একটি ব্যবস্থা যার মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন রকমের পণ্য বিক্রি করতে পারবেন। গ্রামের অঞ্চলে যে সকল পণ্যের অনেক প্রয়োজন রয়েছে এবং তা মানুষের প্রচুর কেনাকাটা করে সেগুলো আপনি বিক্রি করতে পারেন। গ্রামে সকল পণ্যের সুযোগ-সুবিধা খুবই কম থাকে।

তাই আপনি চাইলে তাদের মাঝে একটি দোকান করে সেখানে সকল পণ্য বিক্রি করতে পারেন। এতে করে তারা আপনার ওখান থেকে পণ্য কিনব এবং আপনার ব্যবসা খুবই দ্রুত উন্নতি লাভ করবে। তবে এই ব্যবসা করতে হলে আপনাকে অবশ্যই একটি দোকান ভাড়া নিতে হবে এবং ভালো রকমের টাকা ইনভেস্ট করতে হবে।

6.সার ও কীটনাশক এর ডিলারশিপ ব্যবসা

সার ও কীটনাশক গ্রাম অঞ্চলের একটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয় উপাদান। কেননা গ্রামের অঞ্চলের মানুষের বেশিভাগ কৃষি কাজ করে থাকে। আর কৃষিকাজের জন্য সার ও কীটনাশক এর চেয়ে হচ্ছে একটি অত্যাবশ্যকীয় উপাদান।

আপনি যদি আপনার গ্রামে সার ও কীটনাশকের একটি দোকান দেন তখন তারা দূরে না গিয়ে বা শহরে নাকি আপনার ওখান থেকেই সার ও কীটনাশক কিনবে। এতে করে আপনার ব্যবসা খুবই দ্রুত উন্নত হবে। তবে এর জন্য আপনাকে অবশ্যই কিছু টাকা ইনভেস্ট করে সার ও কীটনাশক এর ডিলারশিপ আনতে হবে এবং একটি দোকান ভাড়া নিতে হবে।

7.বইয়ের দোকান ব্যবসা

গ্রাম অঞ্চলে সচরাচর অন্য সকল ধরনের দোকানপাট দেখা গেলেও বইয়ের দোকান দেখা যায় না। কারণ মানুষ মনে করে থাকেন বইয়ের দোকান থেকে তেমন একটা লাভ হয় না। কিন্তু আপনারা জেনে অবাক হবেন যে এই বই বিক্রির মাধ্যমে প্রচুর পরিমাণে টাকা লাভ করা যায়। আর এটি হচ্ছে এক ধরনের ইউনিক বিজনেস বা ইউনিক ব্যবসা।

গ্রাম অঞ্চলের মানুষ বিভিন্ন ধরনের বই কেনার জন্য শহরে গিয়ে থাকে। কেননা তাদের গ্রামের আশেপাশে ভালো বইয়ের দোকান সচরাচর থাকেনা। তাই তারা বই কেনার জন্য অনেক কষ্ট করে থাকে। তাই আপনি যদি চান তবে আপনার গ্রামে আপনি একটি ভালো বইয়ের দোকান দিয়ে নিতে পারেন। এখানে বিভিন্ন ধরনের আপনি যদি বিক্রি করেন তবে তারা অবশ্যই আপনার কাছ থেকে কিনবে। আর বর্তমানে প্রচুর পরিমাণে লাভ হয়।

আপনি শুধু বইয়ের ব্যবসায়ী নয় বইয়ের দোকানের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের জিনিসপত্র বিক্রি করতে পারেন। পড়ালেখার জন্য বর্তমানে কলম, খাতা, পেন্সিল, বিভিন্ন রকমের পড়ালেখার জিনিসপত্র প্রয়োজন হয়। যা গ্রামে পাওয়া ততটা সহজলভ্য নয়। যদি আপনি এই ধরনের একটি দোকান করেন তবে অবশ্যই আপনি অনেক টাকা আয় করতে পারবেন। তবে এই ব্যবসা করতে হলে আপনাকে অবশ্যই একটি দোকান ভাড়া নিতে হবে এবং কিছু টাকা ইনভেস্ট করতে হবে।

আশা করি আপনারা গ্রামের বিভিন্ন লাভজনক ব্যবসার আইডিয়া সম্পর্কে বুঝে গেছেন। এই ছিল আমাদের সকল গ্রামের বিজনেস আইডিয়া গুলো। যদি এই পোষ্টটি সম্পর্কে আপনাদের কোন প্রশ্ন থাকে তবে অবশ্যই আমাদেরকে কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন। আমরা অতি দ্রুত আপনার প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। এতক্ষণ সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদেরকে ধন্যবাদ।

Link – ছাত্রদের জন্য ১০ + ব্যবসা আইডিয়া

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *