জন্ম নিবন্ধন সংশোধন অনলাইন

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন অনলাইন

আপনি কি আপনার জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে চাচ্ছেন? আপনি কি জানতে চান কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে হয় অনলাইনে? তবে আজকের আর্টিকেল টি আপনার জন্য। কেননা এই পোস্টটিতে আমি জন্ম নিবন্ধন সংশোধন অনলাইন নিয়ে আলোচনা করব। এমনকি কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন অনলাইনে করা যায় তা অত্যন্ত সুন্দরভাবে তুলে ধরবো। আপনি যদি সম্পূর্ণ পোস্টটি ভালোভাবে পড়েন তাহলে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন আপনি নিজেই ঘরে বসে করতে পারবেন। কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন অনলাইনে করা যায়।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন অনলাইন

মানুষ মাত্রই ভুল। আমরা আমাদের জীবনে নানা ধরনের ভুল করে থাকি। অনেক সময়  জন্ম নিবন্ধন করার সময় আমাদের ভুল হয়ে থাকে। কেননা মানুষ ভুলের উর্ধে নয়। তবে ভুল হলেও প্রতিদিনের সংশোধনের একটি উপায় থাকে।কেননা সমস্যা থাকলে তার সমাধান অবশ্যই থাকবে। অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন খুবই সহজ ব্যাপার। পূর্বে আমাদের জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদে যেতে হতো।

  Link – জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

 

এমনকি নানা ধরনের বাধা বিপত্তি পেরিয়ে তারপর জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে হতো। কিন্তু বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করা অত্যন্ত সহজ হয়ে গেছে। কেননা এখন ঘরে বসেই  জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করা যায়। এর ফলে যেমন আপনার প্রয়োজনের সময় বাড়ছে তেমনি টাকা বাঁচে। এমনকি হয়রানির শিকার হতে হয় না। তাই এত কষ্ট করে ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে হয়রানি না হয় ঘরে বসেই আপনার জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করুন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য প্রথমে আপনাকে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট bdris.gov.bd এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর আপনি ইন্টারফেস দেখতে পারবেন। আপনাকে জন্ম নিবন্ধন নম্বর দেয়ার কথা বলা হয়েছে। এবং অন্যটিতে আপনাকে জন্ম তারিখ কার কথা বলা হয়েছে। আপনি শুধু সেই তথ্যগুলো পূরণ করুন। তথ্যগুলো পূরণ করার পর ভেরিফাই করুন। এরপর আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন দেখতে পাবে।

এভাবে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে দেখতে পাবেন। এরপর এখান থেকে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে পারবেন। এর জন্য প্রথমে আপনাকে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। এবং সেখানে আপনার ঠিকানা সুন্দর ভাবে ঠিক করে লিখতে হবে। এরপর তা অল্প সময়ের মধ্যে সংশোধন হয়ে যাবে।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার নিয়ম

পূর্বে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদে যেতে হতো। সেখান থেকে একটি ফর্ম নিয়ে তা পূরণ করতে হতো। এমনকি এই ফর্ম পেতে অনেক ভোগান্তির শিকার হতে হতো। নানা ধরনের হয়রানির পর এই ফরম দেয়া হচ্ছে। এভাবে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করা হতো। কিন্তু বর্তমানে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করা যায়। এমনকি এটি খুবই সহজ কাজ।

আমি উপরে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার নিয়ম দিয়ে দিয়েছি। আপনারা যদি উপরের লেখাটি ভালোভাবে পড়েন তাহলে খুব সহজেই জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে পারবে। এর জন্য আপনাকে আপনার নিকটস্থ ইউনিয়ন পরিষদে যেতে হবে না। এমনকি আপনাকে হয়রানির শিকার হতে হবে না। আপনি ঘরে বসে আপনার প্রয়োজনীয় জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে পারবেন। এর জন্য শুধু উপরের লেখাগুলো ভালভাবে পড়ুন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের জন্য আবেদন

জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের জন্য নিচের পদক্ষেপগুলো ভালভাবে পড়ুন:

*** যদি আপনার পিতা/মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বর থাকে, তাহলে তাদের জন্ম নিবন্ধন নম্বর দিয়ে জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদন করে তাদের নাম সংশোধন করে আসতে হবে। এরপর যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন করার সময় আপনার পিতা/মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বর দিয়ে থাকেন, তবে তাদের নাম সংশোধন করার পর আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ পুনর্মুদ্রণ করলে সেখানে পিতা/মাতার সংশোধিত নাম দেখা যাবে। আর যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন করার সময় আপনার পিতা/মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বর না দিয়ে থাকেন, তবে আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বরের সাথে পিতা/মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ম্যাপ করতে হবে। পিতা/মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ম্যাপ করার পর আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ পুনর্মুদ্রণ করলে, সেখানে পিতা/মাতার সংশোধিত নাম দেখা যাবে।
*** যদি আপনার পিতা/মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বর না থাকে এবং আপনার জন্ম তারিখ 01/01/2001 এর পূর্বে হয়, তবে আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদন করার সময় আপনার পিতা/মাতার নাম সংশোধন করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনার পিতা/মাতা মৃত হলেও তাদের মৃত্যুর কোন প্রমাণপত্র দাখিল করতে হবে না।
*** যদি আপনার পিতা/মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বর না থাকে এবং আপনার পিতা/মাতা মৃত হয় এবং আপনার জন্ম তারিখ 01/01/2001 এর পরে হয়, তবে আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদন করার সময় আপনার পিতা/মাতার নাম সংশোধন করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনার পিতা/মাতার মৃত্যুর প্রমাণপত্র দাখিল করতে হবে।

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *