ব্যর্থ প্রেমের কবিতা – 100 টি ব্যর্থ প্রেমের কবিতা

ব্যর্থ প্রেমের কবিতা – 100 টি ব্যর্থ প্রেমের কবিতা

অনেকেই প্রেমে ব্যর্থ হয়ে থাকে। প্রেমে ব্যর্থ হওয়ার কারণে তাদের কষ্টের সীমা থাকে না। কেননা বর্তমানে মানুষ আবেগ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। আবেগের বশবর্তি হয়ে তারা কষ্টে জীবনযাপন করে থাকে। অনেকে আবার প্রেমে ব্যর্থ হয়ে কবি হয়ে যায়। তার মধ্যে একটা কবি কবি ভাব আসে। কেননা ব্যর্থতা তাদের জীবনকে গ্রাস করে ফেলে। আজকে আমি ব্যর্থ প্রেমের কবিতা আপনাদের সামনে তুলে ধরব। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে। তাই কবিতাগুলো মনোযোগ দিয়ে পড়ুন

এখানে যা যা পাবেন

ব্যর্থ প্রেমের কবিতা

দুনিয়ায় জটিলতার বাহিরে তারা চলে,
তাইতো বহু লোকে একটি কথা বলে।
পাগলের সুখ মনে মনে,
পাতা কুড়িয়ে টাকা গোনে।
তারা হাসে কাদে প্রতিক্ষণে,
কেইবা তাদের গল্প শোনে।
তারা ব্যাতিক্রম তাই থাকে রাস্তার কাছে,
খুঁজে দেখো তাদেরও একটা গল্প আছে।
রাস্তার কিছু মোড়ে বা গাছতলার তাদের দেখা মেলে,
অনেক কিছুই গোপন রেখে তারা অকারনে হেসেফেলে।
পাগল উপাধিতে আক্ষায়িত যারা তাদের ভালবাসা মনে সুপ্ত,
পাগলের প্রেম নিঃসার্থ তাই জ্ঞানী ব্যক্তির ভীরে ভালবাসা বিলুপ্ত।
সেই রাত টা অনেক সুখের ছিলো,
যে রাতে কবি অর্ধমৃত ঘুমিয়েছিলো।
মনে অনেক শব্দগুচ্ছ ছিলো,
হাতে কলম পাশে ডাউড়িও ছিলো,
অমিমাংশিত একটা গল্প ছিলো,
বুকে গোপন কিছু চাপা কষ্ট ছিলো,
রাত তখন খুব বেশিই নির্জন ছিলো,
তবুও ডাইড়িতে না কিছু লেখা হয়েছিলো।
সেইদিন কিন্তু আপন মন তার সাথেই ছিলো!
ঠিক মনে নেই দিনটা…………তারিখটা যেন কি ছিলো?
কবি মন আজ ছোট্ট কথা নিয়ে এই ভবে ……….🧐🧐
যেখানে সবাই নিজের স্বার্থের কথা ভাবে ……….🤨🤨
সেখানে মানুষ স্বার্থ ♦পর♦ হয় কিভাবে ………..🤔🤔

ব্যর্থ প্রেমের সফল কবিতা

কেউ কথা রাখেনি……………
কোলে মাথায় করে রাখবে সবাই সারক্ষন,
একটু বড় হতেই আর কোল আগিয়ে আসেনি।
কেউ কথা রাখেনি…………….
সারাক্ষণ একসাথেই থাকবে খেলার সাথীরা,
কোথায় তারা বয়স বাড়ায় তারাও আর খেলতে ডাকেনি।
কেউ কথা রাখেনি……………..
সারাজীবন কোলে বসে খাবে আমার ছেলে,
কর্মের তাগিদে সেই মায়ের কলেও আর বসা হয়নি।
কেউ কথা রাখেনি……………..
কারো নুপুর উঠানে বাজবে আমার হয়ে,
শূন্য পকেট তাই নুপুরও আর আমার উঠানে বাজেনি।
কেউ কথা রাখেনি……………..
নিজের পায়ে দাড়ালে সুখ পাবে অর্থ আয় হবে,
সব ছেড়ে এসে আমি একা তবুও সেই সুখও আসেনি।
কেউ কথা রাখেনি………………
আরো কত কথা অপূর্ন রবে,
কতো কথা হাওয়ায় মিশে যাবে।
কত সময় বদলে যাবে,
সৃতিচারণ এক অতিত রবে।
নিজেও নিজের না রবে,
এই মিছে দুনিয়া পরেই রবে।
নিজেকে রেখে চারদিক টা কেউ দেখেনি,
তাইতো সবাই সার্থপর কেউ কথা রাখেনি …………
আজ বহুদিনের পর,
মনে হঠাৎ উঠেছে ঝড়।
চোখে প্রলয়বান,
ঠোটে একটা গান,
আকাশ টা হয়েছে স্তব্ধ,
কবিতার মিলছেনা শব্দ।
বেতাল হচ্ছে সুর,
সুখ রেখে আমি বহুদূর।
কান্নার জলে প্লাবিত মনের ঘর,
শুধু তোমায় দেখার পর ……..👀

Bertho Premer Kobita

আমিই তোমার প্রথম ভালবাসা তোমার কি মনে পরে,
কথা দিয়েছিলে বউ হয়ে আসবে তুমি যার ভাঙা ঘরে ।
আমি সেইজন যে প্রথম তোমার ঠোটের স্পর্শ পায়,
আমার ভালবাসা তুমি তাই সব কথাই মনে পরে যায় ।
বাহিরে অবিরত পানি বর্ষণ ছিল পেরিয়েছে বর্ষাকাল,
মনে পরে কি সেই শীত নীরব রাতে দুটি পাখি গায়ে একটা শাল ।
স্বপ্ন গুলো আছে কি চোখে যা দেখেছিলাম দুজন মিলে,
আমিই যে তোমার প্রথম ভালবাসা তুমি কিভাবে ভুলে গেলে ।
চলার পথে আবার যদি এসে পরি তোমার সম্মুখীন দৃষ্টিতে,
সেই দিনটা যেন বর্ষার হয় তুমি আমি ভেজা থাকি বৃষ্টিতে।
দেখা যেন কোনো বর্ষায় হয় যেখানে হয়েছিলো প্রস্থান,
নদীনালা সব পানি পূর্ন তবুও রয়েছে তোমারই শূন্যস্থান ।
তোমাকে ছেড়ে ভালই আছি জীবন অনেকটাই ব্যতিক্রম,
আগের মতোই শয়তান আমি শোধরায়নি কার্জক্রম ।
যেমন ছিলাম তেমনি আছি হয়নি কোনো পরিবর্তন,
আমি শয়তান তোমার প্রথম ভালবাসা মনে পরে কি এখন ?
ভোরের প্রথম রৌদ্র ঝলক তোমার চোখের চাহনি,
তোমার রূপে বিভোর আমি চোখ ফেরাতে পারিনি।
কাজল কালো চোখে তোমার আমার সুখ ভাষে,
হাড়িয়ে যেতে ইচ্ছে হয় তোমার কালো চুলের দেশে।
চোখ দুটো অতুলনীয় সাথে ঘন রেশমি কালো চুল,
তোমার কাছে ভালবাসা চাওয়া হবে কি আমার ভুল?
বাকা চোখের চাহিনিতে আমি আনমনে হয়ে পরি,
প্রতি প্রহরে পাশে পাই তোমায় অহে আমার সুন্দরী।
তোমার চুলের মিষ্টি ঘ্রানে হাড়াতে ইচ্ছে হয়,
কোনোদিন তুমি আসবে পাশে বলে এই হৃদয়।
গল্প কথায় শুনেছি পরীদের ডানার কথা,
তোমাকে দেখে বুঝছি সব গল্পই ছিলো বৃথা।
কই তোমার তোহ নেই ডানা তবে ঘন কালো চুল আছে,
এই পরী কি নামবে আমার চিলেকোঠায় থাকবে আমার কাছে।
তোমার চোখে দুনিয়া দেখি যা নিজের অজান্তে গড়েছি,
শুরুর বন্ধুত্ব কখন বদলে গিয়ে তোমার প্রেমে পরেছি।
চলছে যেমন চলুক না শেষ হবেনাতো অল্পে,
এক সাথে দুজন ঘর বাধবো আমাদের এই গল্পে।

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *