কাজু বাদামের উপকারিতা ও খাওয়ার নিয়ম

কাজু বাদামের উপকারিতা ও খাওয়ার নিয়ম

কাজু বাদামের উপকারিতা – আমাদের মাঝে অনেকেই আছে যারা কাজুবাদাম অনেক পছন্দ করে থাকে। কাজু বাদামে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট , ভিটামিন , খনিজ ও প্রোটিন রয়েছে। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট টিউমার কোষ কে ধ্বংস করে। এছাড়াও এটি ক্যান্সারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলে। আপনি যদি প্রতিদিন অন্তত পাঁচটি কাজু বাদাম খান , তাহলে আপনার শরীরের পুষ্টির অভাব পূরণ হবে। চলুন জেনে নেয়া যাক কাজু বাদামের উপকারিতা।

কাজু বাদামের উপকারিতা

  • কাজু বাদামের মধ্যে উপস্থিত একটি ফ্যাটি এসিড এর নাম অলিসিক। এটি শরীর খারাপ কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম।
  • এছাড়াও কাজুবাদামে থাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা টিউমার কোষকে ধ্বংস করে এবং এটি ক্যান্সারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলে।
  • কাজুবাদামের রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম। ব্লাড প্রেসার কে নিয়ন্ত্রণ করে থাকে কাজুবাদাম উপস্থিত ম্যাগনেসিয়াম।
  • সুস্থ হার্টের জন্য কাজুবাদাম এর জুড়ি নেই। আপনি যদি আপনার হার্টকে সুস্থ রাখতে চান তাহলে নিয়মিত কাজু বাদাম খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।
  • কাজুবাদামের রয়েছে কপার এর উপস্থিতি। আর কপার চুলের গোড়া শক্ত করে এবং চুলকে মসৃণ করে থাকে।
  • এছাড়াও কাজু বাদাম খাওয়ার ফলে শরীরে প্রোটিন ও পুষ্টি চাহিদা পূরণ হয়ে যায়।

কাঠ বাদামের উপকারিতা ও খাওয়ার নিয়ম

কাজু বাদামের দাম

প্রতি 1 কেজি কাজু বাদামের দাম ছোট সাইজের 850 টাকা।

প্রতি 1 কেজি মাঝারি সাইজের কাজু বাদামের দাম 1050 টাকা।

প্রতি 1 কেজি বড় সাইজের কাজু বাদামের দাম বারোশো টাকা।

কাজু বাদাম খাওয়ার নিয়ম কি

বিভিন্ন নিয়ম ভিত্তিক কাজু বাদাম খাওয়ার নিয়ম রয়েছে। ধরেন আপনি যদি ডায়েট করতে চান তাহলে আপনাকে সকাল 11 টা থেকে 12:00 টার মধ্যে এক মুঠো বাদাম খেতে হবে। এবং বিকেল চারটা থেকে সাড়ে 4 টার মধ্যে এক মুঠো বাদাম খেতে হবে। আর তাছাড়া আপনি যদি এমনি বাদাম খেতে চান তাহলে আপনি যেকোনো সময় খেতে পারেন।

 তবে আপনি যদি মধুর সাথে কাজুবাদাম মিশিয়ে খেতে পারেন তাহলে আপনার জন্য তার সবচেয়ে বেশি উপকার হবে। মধুর সাথে মিশিয়ে খেলে সবচেয়ে বেশি উপকার পাবেন।

কালোজিরার উপকারিতা ও খাওয়ার নিয়ম

কাজু বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা

কাজু বাদামের উপকারিতা বেশি। এর অপকারিতা নেই বললেই চলে। কাজুবাদাম শক্তি বৃদ্ধিতে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখে। এছাড়াও আপনি যদি প্রতিদিন সকালবেলা কাজু বাদাম খেয়ে থাকেন তাহলে আপনার কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়ে যাবে। এছাড়াও হাড়ের গঠন মজবুত করতে কাজুবাদাম এর জুড়ি নেই। বর্তমান বিশ্বে মোটা স্বাস্থ্য একটি বিশাল অসুবিধার নাম।

আপনি যদি আপনার শরীর স্থূলতা দূর করতে চান তাহলে প্রতিনিয়ত 10 থেকে 15 টি কাজু বাদাম খাবেন। কেননা কাজুবাদাম শরীরের ওজন কমাতে সহায়তা করে। কাজু বাদামের মধ্যে যে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে যা শরীরের চর্বি কেটে ফেলে। অতি দ্রুত শরীরের ওজন কমে যায়। তাই শরীরের ওজন কমাতে কাজু বাদাম খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

কাজু বাদামের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

আমরা সকলেই জানি যে , অতিরিক্ত কোন কিছুই ভালো না। তেমনি আপনি যদি অতিরিক্ত কাজু বাদাম খেয়ে থাকেন তাহলে আপনার শরীরে সমস্যা দেখা দিবে। কাজুবাদাম হচ্ছে অত্যন্ত পুষ্টিকর একটি খাবার। তবে আমরা প্রতিনিয়ত মাছ মাংস খেয়ে থাকি। যা থেকে আমাদের শরীরে পুষ্টি হয়। এখন যদি আমরা অতিরিক্ত কাজু বাদাম খাই তাহলে তা থেকে আমাদের শরীরে পুষ্টি জমা হবে। যার ফলে আমাদের শরীরের সমস্যা হতে পারে।

কাজে বাদামে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম থাকে। আর আমরা জানি ম্যাগনেসিয়াম ঔষধের কাজ ব্যাহত করে থাকে। তাই আপনি যদি অতিরিক্ত পরিমাণে কাজু বাদাম খান , তাহলে আপনার শরীরে ঔষধের কার্যক্রম কমে যাবে। ফলে ঔষধ খেয়ে আপনি ভাল ফলাফল পাবেন না। তাই অতিরিক্ত কাজু বাদাম খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

পেস্তা বাদামের উপকারিতা

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *