রসুনের উপকারিতা ও খাওয়ার নিয়ম

রসুনের উপকারিতা ও খাওয়ার নিয়ম

রসুনের উপকারিতা – আমাদের প্রত্যাহিক জীবনে বহুল ব্যবহৃত একটি মসলার নাম রসুন। খাবারের রান্নার স্বাদ বাড়াতে রসুন অত্যন্ত কার্যকরী একটি মসলা। তাছাড়া রসুনের বিভিন্ন উপকারিতা রয়েছে। আমাদের মানবদেহের জন্য অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। আমাদের নানা ধরনের রোগ নিরাময় রসুন সাহায্য করে থাকে। আজকে আমি আপনাদের বিভিন্ন উপকারিতা সম্পর্কে জানাবো।

আমরা শুধু রসুন কে মসলা হিসেবে ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু অনেক মানুষ জানে না যে , মসলা ছাড়াও রসুনের গুনাগুন রয়েছে। রসুন ক্যান্সার কোষকে ধ্বংস করে থাকে। তাছাড়া রসুন উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। যদি কারো উচ্চ রক্তচাপ থেকে থাকে তাহলে প্রতিদিন দুই কোয়া রসুন খেয়ে নিন। দেখবেন আপনার উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি কমে গেছে।

Link – অশ্বগন্ধার উপকারিতা ও অপকারিতা

রসুনের উপকারিতা

রসুন এমন একটি মসলা যার উপকারিতা বলে শেষ করা যাবে না। আপনার যদি স্বাস্থ্য বেশি থাকে তাহলে রসুন এর মাধ্যমে আপনি তা কমাতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে প্রতিদিন দুই কোয়া রোশন এর সাথে লেবুর রস মিশিয়ে খেতে হবে। এর ফলে আপনার শরীরের মেদ কমে যাবে। রসুনে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি এসিড থাকায় ইহা শরীরে কোলেস্টেরল কমায়। কোলেস্টরেল কমার ফলে শরীরের  শরীরের ওজন কমে যায়।

এছাড়াও আপনি যদি প্রতিদিন সকালবেলা দুই কোয়া করে রসুন খান , তাহলে আপনার শরীরে ক্যান্সার কোষ গুলো ধ্বংস হয়ে যাবে। এছাড়াও প্রতিদিন কাঁচা রসুনের কোয়া খাওয়ার ফলে আপনার শরীরের চামড়া টাইট থাকবে। আপনার শরীরের চামড়া সহজে কুচে যাবে না। তাই প্রতিদিন রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

কাঁচা রসুনের উপকারিতা

আমরা সাধারণত রসুন কে মসলা হিসেবে খাবারে ব্যবহার করে থাকি। রসুন একটি সফল ভেষজ উদ্ভিদ। সারা বিশ্বজুড়ে এর চাহিদা রয়েছে। শ্বাসকষ্ট কমায় , শরীরের ওজন কমায় , শরীর থেকে চর্বি দূর করে, রক্ত পরিষ্কার করে , হাঁপানি থেকে মুক্ত করে , চুলপাকা কমায় এরকম নানা রোগের কাজে কাঁচা রসুন ব্যবহার করা হয়। এর জন্য আপনাকে প্রতিদিন অন্তত দুই থেকে তিন কোয়া রসুন চিবিয়ে খেতে হবে।

তাছাড়া গলার কফ দূর করতে পানির সাথে রসুন সিদ্ধ করে খেলে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। এছাড়াও কাঁচা রসুনের নানা গুনাগুন রয়েছে। আপনি যদি প্রতিদিন নিয়ম করে দুই কোয়া রসুন খেয়ে যান , তাহলে আপনি আপনার শরীরে আমূল পরিবর্তন দেখতে পাবেন। এছাড়াও প্রতিদিন খালি পেটে কাঁচা রসুন চিবিয়ে খেলে পেটের গ্যাস দূর হয়।

কাঁচা রসুনের উপকারিতা ও অপকারিতা

রসুন এমন একটি ভেষজ উদ্ভিদ যার অপকারিতা নেই বললেই চলে। রসুনের উপকারিতা বেশি। কাঁচা রসুনের উপকারিতা বলে শেষ করা যাবে না। উপরে আমি এর কিছু ব্যাখ্যা দিয়েছি। আমি আগেই বলেছি যে , আপনি যদি প্রতিনিয়ত নিয়ম করে সকাল বেলা খালি পেটে দুই কোয়া রসুন প্রতিদিন চিবিয়ে খান , তাহলে আপনার পেটের গ্যাসের সমস্যা দূর হবে। আপনার পেটে কখনো গ্যাস হবে না। তাছাড়া প্রতিদিন কাঁচা রসুন চিবিয়ে খাওয়ার ফলে শরীরের রক্ত পরিষ্কার হয়ে থাকে।

এছাড়াও কাঁচা রসুনের কোলেস্টরলের মাত্রা কমিয়ে দেয়। তবে আমরা জানি যে অতিরিক্ত কোন কিছুই ভালো না। আপনি যদি অতিরিক্ত রসুন খেয়ে থাকেন তাহলে এর অপকারিতা ও রয়েছে। এর ফলে আপনাকে নানা ধরনের সমস্যায় ভুগতে হবে। তাই অতিরিক্ত রসুন খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। প্রতিদিন দুই থেকে তিন কোয়া রসুনে আপনার জন্য যথেষ্ট।

রসুনের উপকারিতা কি

অনেকেই প্রশ্ন করে থাকে রসুনের উপকারিতা কি? প্রকৃতপক্ষে অসাধারণ গুণ সম্পন্ন একটি ভেষজ উদ্ভিদ। রসুনের নানা ধরনের উপকারিতা রয়েছে।  রসুন আপনার শরীরের দুর্বলতা দূর করে থাকে।  আপনার যদি কোন শারীরিক দুর্বলতা থাকে , তাহলে প্রতিদিন দুই কোয়া করে রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।  দেখবেন আপনার শরীর দুর্বলতা দূর হয়ে গেছে। এছাড়াও রসুনের উপকারিতা আমি উপরে উল্লেখ করেছি।  এ থেকে আপনি বুঝতে পারছেন উপকারিতা বলে শেষ করা যাবে না।

ব্রণে রসুনের উপকারিতা

মুখের ব্রণ দূর করতে রসুনের জুড়ি নেই। আপনার মুখে যদি ব্রণ থেকে থাকে , তাহলে প্রতিদিন কাঁচা রসুন বেটে পেস্ট বানিয়ে তা মুখে লাগিয়ে রাখুন। এভাবে কিছুদিন লাগানোর পর আপনি দেখতে পারবেন আপনার মুখের ব্রণ দূর হয়ে যাচ্ছে।এভাবে আপনি দীর্ঘদিন আপনার মুখে রসুনের পেস্ট লাগাতে থাকুন। একসময় দেখতে পারবেন আপনার মুখের সমস্ত ব্রণ চলে গেছে। এমনকি আপনার মুখ পূর্বের তুলনায় অনেক উজ্জ্বল দেখাচ্ছে।

রাতে রসুন খাওয়ার উপকারিতা

অনেক মানুষ আছে যারা তাদের শারীরিক সমস্যা দূর করার জন্য রাতে রসুন খেয়ে থাকে। যেহেতু রসুন বিশেষ গুণ সম্পন্ন , তাই এর উপকারিতা অনেক। আপনি যদি রাতে রসুন খান , তাহলে আপনার এজমা কমে যাবে। বর্তমানে একটি মারাত্মক রোগ হয়ে দাঁড়িয়েছে। রসুন এজমা কন্ট্রোল করে থাকে। তাই যদি আপনার অ্যাজমা বা হাঁপানি থাকে , তাহলে প্রতিদিন রাতে এক কোয়া করে রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। দেখবেন আপনি শ্বাসকষ্ট থেকে দূরে আছেন। বলা যায় আপনার শ্বাসকষ্ট অনেকটা কমে যাবে।

ওজন কমাতে রসুনের উপকারিতা

ওজন কমাতে রসুন এর উপকারিতা অপরিসীম। আমি পূর্বেই উল্লেখ করেছি রসুন শরীরের কোলেস্টেরল কমায়। কোলেস্টরেল হচ্ছে শরীরের চর্বি। আর শরীর থেকে চর্বি কমে গেলে শরীরের ওজন কমে যায়। আর রসুন প্রচুর পরিমাণে শরীর থেকে চর্বি কমিয়ে থাকে। যার ফলে অতি দ্রুত ওজন কমে যায়। তাই আপনি যদি আপনার শরীর অতিরিক্ত চর্বি নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন , তাহলে প্রতিদিন রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। তবে এর মাত্রা যেন বেশি না হয়।

Link- দ্রুত ওজন কমানোর উপায়

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *