ফেসবুকে অনলাইন ব্যবসা

ফেসবুকে অনলাইন ব্যবসা

ফেসবুকে অনলাইন ব্যবসা – বর্তমানে পৃথিবীতে যে যুগ চলছে সেটি হচ্ছে অনলাইনের যুগ। তাই এখন অনলাইন মাধ্যম ব্যবসা করার একটি নতুন পদ সৃষ্টি হয়েছে। আর এই অনলাইনে ব্যবসা করার সবচেয়ে একটি ভালো সহজ পন্থা হলো ফেসবুক অনলাইন ব্যবসা। তাই আপনারা যদি অল্পকিছু টাকা দিয়ে একটি ব্যবসা শুরু করতে চান । তবে আপনাদের জন্য এই ফেসবুকের অনলাইন ব্যবসাটি।

বর্তমানে আমাদের দেশে প্রচুর পরিমাণে বেকার যুবকরা বসে আছে। তাদের জন্যই এই ব্যবসাটি। কেননা ফেসবুকের মাধ্যমে অনলাইন ব্যবসা হয় বর্তমানে একটি বড় ধরনের ব্যবসা হয়ে দাঁড়িয়েছে। যদি কেউ সত্যনিষ্ঠা ভাবে ফেসবুকে অনলাইন ব্যবসা করে তবে অবশ্যই সফল হতে পারবে।

এই ব্যবসার সবচেয়ে বড় উপকারিতা হলো এ ব্যবসা করতে খুবই কম টাকার প্রয়োজন হয়। অর্থাৎ অল্প ইনভেসমেন্ট এই ব্যবসা করা যায়। যদি আপনি বেকার বসে থাকেন তবে আপনি অল্পকিছু টাকা দিয়ে এই ফেসবুকের মাধ্যমে অনলাইন ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

ফেসবুকে অনলাইন ব্যবসা

ফেসবুকে অনলাইন ব্যবসার বিভিন্ন রকমের পন্থা রয়েছে। সে সকল পন্থাগুলো জানতে আমাদের সঙ্গে থাকুন। যদি আপনি চান এ ফেসবুক ব্যবস্থার মাধ্যমে আপনি আপনার কর্মসংস্থান করতে পারেন। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই সকল পন্থাগুলো।

তার আগে আপনাদেরকে বলেনি ফেসবুকে এই ব্যবসা করতে হলে আপনাকে অবশ্যই সত্যবাদী এবং সৎ ব্যক্তি হতে হবে। আপনাকে আপনার গ্রাহকদের বিশ্বস্ততা অর্জন করতে হবে। তবে আপনি আপনার ব্যবসা এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন।

কিন্তু এ ব্যবসা করতে হলে আপনাকে সবার আগে খোঁজ নিতে হবে কিভাবে যেকোনো জিনিসপত্র যা আপনি ফেসবুকে অনলাইনে বিক্রি করবেন তা কম দামে কেনা যায় বা কমদামের বাজার খুঁজে পাওয়া যায়। কেননা কম দামে আপনি জিনিসপত্র কিনতে পারলেই আপনার গ্রাহকদেরকে সেটা আপনি কিছুটা কমে বিক্রি করতে পারবেন। এতে আপনার বিক্রি বেশি হবে। এভাবে আপনি আপনার ব্যবসা আস্তে আস্তে অনেক বড় করতে পারবেন।

ফেসবুক পেজের মাধ্যমে ব্যবসা

বর্তমানে ফেসবুক পেইজে বিভিন্ন ধরনের প্রোডাক্ট আপনি বিক্রি করে আপনি একটি অনলাইন ব্যবসা শুরু করতে পারেন। যদি আপনি অনলাইনে বিজনেস করতে চান তবে ফেসবুক হচ্ছে একটি সেরা সোসিয়াল মিডিয়া সাইট। আর এই ফেসবুক থেকে ব্যবসা করে টাকা আয় করার জন্য সবচেয়ে প্রধান কাজ হচ্ছে একটি ফেসবুক পেজ ঢাকা।

ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন প্রোডাক্ট এর এড দিতে পারবেন এবং তার মূল্য আপনি দিতে পারবেন সেখানে। কারো যদি পছন্দ হয় সেই পণ্যটি তবে সে ওই পণ্যটি আপনার কাছে অর্ডার করতে পারবে। তখন আপনি সেই পণ্য তাকে বিভিন্ন কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে তার কাছে পৌঁছে দিতে পারবেন। এভাবে তার কাছ থেকে আপনি এভাবে অর্ডার নিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন।

তবে ফেসবুকে টাকা আয় করার জন্য সবচেয়ে প্রধান বিষয় হচ্ছে আপনি গ্রাহকদেরকে আপনার প্রতি আকৃষ্ট করতে হবে। যদি আপনি তাদের সাথে ভালো সার্ভিস দিয়ে থাকেন তবে তারা অবশ্যই আপনাকে বিশ্বাস করবে। আপনি বিরক্ত হলে তাদের কাছ থেকে বেশি অর্ডার নিতে পারবেন এবং বেশী বেশী প্রোডাক্ট বিক্রি করতে পারবেন। এজন্য গ্রাহকদের সাথে সবসময় ভালো ব্যবহার ও তাদেরকে ভাল সার্ভিস দিতে হবে।

ফেইসবুক মারকেটপ্লেস ব্যবসা

যুগে ব্যবসা করা আরও একটি বড় মাধ্যম হচ্ছে মার্কেটপ্লেস। এই মার্কেটপ্লেসে আপনি বিক্রি করেন এমন সকল প্রোডাক্ট এর অ্যাড দিতে পারবেন আপনি। সেখান থেকে কারো কোন জিনিস পছন্দ হলে সে সেই জিনিসটি ক্রয় করার জন্য আপনার সাথে যোগাযোগ করবে। তখন সেই প্রোডাক্টটি আপনি তার সাথে কথা বলে বিক্রি করতে পারবেন।

এজন্য প্রয়োজন হবে আমাকে একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট। তারপর আপনি সেই ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে সে মার্কেটপ্লেসে আপনার বিকৃত প্রডাক্টিভ এড দিতে পারবেন। তারপর সেই প্রোডাক্ট আপনি গ্রাহকদের সাথে কথাবার্তা বলে বিক্রি করতে পারবেন।

তবে এজন্য আপনাকে অল্প দামের জিনিসপত্র কিনে তা আবার তা যতটা সম্ভব কম তাদেরকে বিক্রি করতে হবে। কিন্তু যদি আপনার পণ্যটি মান ভালো না হয় তবে কিন্তু আপনার এই ব্যবসা বেশি দিন চলবে না। মানুষ তখন আপনার ব্যবসাকে পছন্দ করবে না। কি করে আপনার ব্যবসা ভালো হবে না এবং আপনি লোকসানের মুখোমুখি হতে পারে।

ফেসবুক গ্রুপের মাধ্যমে ব্যবসা

ফেসবুকে বিভিন্ন ধরনের গ্রুপ থাকে। আপনি যদি সবকিছু ভালো জনপ্রিয় ফলওয়ালা গ্রুপে জয়েন করতে পারেন। তখন সেই গ্রুপে আপনি আপনার পণ্যটি এড দিতে পারবেন বাসেই পণ্যটি সম্পর্কে পোস্ট লিখতে পারবেন। তখন সেই গ্রুপের কেউ আপনার পণ্যটি পছন্দ করলে তার সাথে আপনি যোগাযোগ করে তাকে পণ্যটির দিতে পারবেন।

পণ্যটি যখন কেউ পছন্দ করবে তখন সে আপনার সাথে যোগাযোগ করবে। আপনি সেই পণ্যটি তাকে কত দামে কিভাবে দেবেন সব কিছু কথাবার্তা বলে তার ঠিকানা নিয়ে কুরিয়ার বা বিভিন্ন ধরনের ট্রান্সপোর্ট সিস্টেমের মাধ্যমে তার কাছে ঠিকানায় পাঠিয়ে দিবেন। সে যদি জিনিসটা ভাল পায় তবে সে খুশি হবে এবং আপনার ব্যবসা দ্রুত উন্নতি হবে এবং বিশ্বস্ততা অর্জন করতে পারবেন আপনি।

ফেসবুক স্ট্রিমিং অ্যাপস ব্যবসা

ফেসবুকে স্ট্রিমিং করার সময় আপনার পণ্যের অ্যাড দিয়ে আপনি সেই পণ্যটি বিক্রি করতে পারেন। ফেসবুকে বিভিন্নভাবে লাইভস্ট্রিমিং করা যায়। আপনি চাইলেই স্ট্রিমিং করে সেখানে আপনার পন্যের এড দিতে পারবেন। তবে এজন্য আপনাকে একটি পেইজ প্রয়োজন হবে এবং সেই পেইজে ভালো ধরনের ফলোয়ার্স থাকতে হবে।

ফেসবুকে ফলোয়ার তৈরি করার পর আপনি সেখানে আপনার পণ্যটি লাইভ স্ট্রিমিং করে এড দিতে পারবেন। সেই স্ট্রিম মানুষ দেখলে আপনার সাথে যোগাযোগ করবে যদি পণ্যটি তার পছন্দ হয়। তারপর সে আপনার সাথে যোগাযোগ করে সেটার দাম ফিক্সট করে তার ঠিকানা দিয়ে দেবে। তখন আপনি কুরিয়ারের মাধ্যমে তার ঠিকানায় পৌঁছে দেবেন এবং টাকা আয় করতে পারবেন।

আশা করি বন্ধুরা আপনারা সবাই কিভাবে ফেসবুক থেকে টাকা আয় করা যায় সে সম্পর্কে জেনে গেছেন বা ফেসবুকের মাধ্যমে ব্যবসা করা যায় তা জেনে গেছেন। তো আপনি চাইলে ফেসবুকের মাধ্যমে ব্যবসা করতে পারেন। এটি বর্তমানে সবচেয়ে আধুনিক অনলাইন ব্যবসা এবং লাভজনক ব্যবসা। কিন্তু এ সকল ব্যবসা করতে হলে আপনাকে অবশ্যই সৎ হতে হবে। উপরের পোস্টে বিষয়ে আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে আমাদেরকে আপনি বলতে পারেন। কমেন্টের মাধ্যমে আপনার প্রশ্নটিই আমাদেরকে জানান। এতক্ষণ সঙ্গে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

Link – বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *