অহংকার নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস, কবিতা ও ছন্দ

অহংকার নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস, কবিতা ও ছন্দ

অহংকার নিয়ে উক্তি – অহংকার হচ্ছে জীবনের সবচেয়ে ঘৃণ্যতম একটি কাজ। অহংকার করা কোনো বুদ্ধিমান ব্যক্তির কাজ হতেই পারে না। জেনি অহংকার করে তিনি মনে করতে পারেন অনেক বুদ্ধিমান নিজে কিন্তু আসলে উনি হচ্ছেন পৃথিবীর সবচেয়ে বড় বোকা। কথায় আছে অহংকার পতনের মূল। তাই আপনি যদি আপনার সামান্য একটু কিছু নিয়ে অহংকার করেন । হাজারো সম্পদ থাকার কারণে সেই নিয়ে অহংকার করেন তবে অবশ্যই আপনি একদিন না একদিন অহংকারের কারণে পতিত হবে নি।

তাই একজন বড়গুনী মানুষ হতে হলে অবশ্যই আপনাকে অহংকার ত্যাগ করতে হবে। কারন পৃথিবীতে যত মহাজ্ঞানী এবং বড় বড় ব্যক্তিবর্গ রয়েছেন তারা কখনোই নিজেকে নিয়ে অহংকার করেন নি। আপনার অনেক থাকতে পারে কিন্তু কখনই তা নিয়ে অহংকার করা উচিত নয়। কারণ সৃষ্টিকর্তা আপনাকে দিয়ে চা বানিয়ে নিতে পারেন। তাই কখনোই আপনি আপনার সবকিছু নিয়ে অংকার করবেন না।

এখানে যা যা পাবেন

অহংকার নিয়ে উক্তি

অহংকার করা একজন মানুষের নৈতিকতার বিরুদ্ধে। শুধু মানুষের নৈতিকতা ও নয় অহংকার কে সকল ধর্মই না করেছে। ইসলাম ধর্মে অহংকার করা এক ধরনের দণ্ডনীয় অপরাধ। শুধু ধর্ম নয় আমাদের সমাজে অহংকার কে পছন্দ করেন না বা না করেছেন। তাই সমাজে মিলেমিশে থাকতে হলে অবশ্যই অহংকার কে ত্যাগ করতে হবে। তো তাই দেরি না করে চলুন জেনে নেওয়া যাক অহংকার নিয়ে সকল বড় বড় মহা জ্ঞানীদের উক্তি।

ইমাম গাজ্জালী (রঃ) বলেছেন,

তিনটি জিনিস মানুষকে ধ্বংস করে। এক হলো লোভ, দ্বিতীয় হিংসা এবং তৃতীয় হল

       অহংকার করা।

 

সূরা হুদ, আয়াত 10 এ বলা হয়েছে,

বিপদ কেটে গেলে মানুষ অহঙ্কারি ও উৎফুল্ল হয়ে ওঠে।

 

জাহাবি বলেছেন,

              বিনয়ী মূর্খ অহংকারী বিদ্বান অপেক্ষা মহত্তর।

 

মার্শাল বলেছেন,

কোন কারণ ছাড়াই যে অন্যকে ঘৃণা করে, সে প্রকৃতপক্ষে অহংকারী। 

 

পিনিরো বলেছেন,

            একজন অহংকারী মহিলা সংসারের পুরো কাঠামো বিনষ্ট করে দেয়।

 

পাবলিয়াস সিয়াস বলেছেন,

একজন অহংকারী মহিলা গৃহে আগুন লাগাতে পারে।

 

জাহাবি বলেছেন,

অহংকার এমন এক আবরণ, যা মানুষের সকল মহত্ব আবৃত করে ফেলে।

 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছেন,

অহংকার জিনিসটা হাতি ঘোড়ার মতো নয়, তাহাকে নিতান্ত অল্প খরচে ও বিনা

            খোরাকে বেশ মোটা করিয়া পোষা যায়।

 

আর্থার গুইটারম্যান বলেছেন,

আমার জীবনের যেখানে নিশ্চয়তা নাই, তখন কী দিয়ে অহংকার করব?

 

জেফারসন বলেছেন,

                চরিত্রের অহংকার সবচেয়ে বড় অহংকার।

 

Link : প্রেমের কবিতা -100 টি প্রেমের কবিতা

টাকার অহংকার নিয়ে উক্তি

বর্তমান যুগের মানুষ অহংকার করে বেশিরভাগই তাদের টাকা পয়সা নিয়ে। কিন্তু তারা কেউই জানেনা আসলেই টাকা-পয়সা এক রকমের হাতের ময়লা বললেই চলে। কেননা এই টাকাপয়সা কখনো রয়েছে আবার কখনো বা শেষ। এই আপনি ধনী ভাই আপনি আবার কখনো হয়ে গেছেন রাস্তার ফকির। তাই টাকা নিয়ে যে ওঙ্কার করে সে হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে দরিদ্র ব্যক্তি। তাই আমরা অবশ্যই টাকা নিয়ে কখনো অংকার করবো না। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক টাকা নিয়ে অহংকার বিষয়ক উক্তি গুলো।

আন্দ্রেয়া ডওয়ারকিন বলেছেন,

পুরুষরা সমস্ত কিছু জানেন – তাদের সব সময় – সর্বদা – তারা যত বোকা, অনভিজ্ঞ বা

  অহংকারী বা অজ্ঞ থাকুক না কেন।

 

ইওয়ান ম্যাকগ্রেগর বলেছেন,

আমি ক্যারিয়ারে বা অন্য লোকেরা কী মনে করে সে সম্পর্কে খুব বেশি মনোযোগ

        দিচ্ছি না। আমি সবসময় বেশ অহংকারী ছিলাম।

 

ওরসন ওয়েলস বলেছেন,

যে কেউ নিঃশব্দে কথা বলে এবং সঙ্গী হয়ে উঠে সে অবিশ্বাস্য অহংকারী।

 

নোয়েল গালাগার বলেছেন,

আমরা অহঙ্কারী নই, আমরা কেবল বিশ্বাস করি আমরা বিশ্বের সেরা ব্যান্ড।

 

জর্জ সান্তায়না বলেছেন,

কোনও জিনিসকে ধাক্কা দেওয়া, বিশেষত যদি এটি অহঙ্কারী কোণে আবদ্ধ থাকে তবে

 তা রক্তের গভীর আনন্দ।

 

হোসে মূরিনোহ বলেছেন,

দয়া করে আমাকে অহংকারী বলবেন না, তবে আমি ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়ন এবং

            আমার ধারণা আমি বিশেষ।

 

রণবীর কাপুর বলেছেন,

আমি যথেষ্ট অভিনব আমি জানতে পেরেছি যে আমি একজন ভাল অভিনেতা এবং

      মানুষ আমার কাজের জন্য আমাকে পছন্দ করবে।

 

বার্নিস কিং বলেছেন,

কিছু লোক মনে হয় আমি অহংকারী। এটি দুর্ভাগ্যজনক, কারণ লোকেরা আমার হৃদয়

 জানে না।

 

ড্যানিয়েল শোয়ার্জ বলেছেন,

আমি এমন লোকদের পছন্দ করি যারা আবেগী, যারা অধ্যবসায় করেছে এবং যারা

      স্পষ্টভাবে নম্র এবং অহঙ্কারী নয়।

 

এন্থনি হপকিন্স বলেছেন,

একজন কন্ডাক্টর কোনও অর্কেস্ট্রা নিয়ে খুব অহঙ্কারী হতে পারে না এবং নিজেকে

     খুব বেশি চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করতে পারে।

আরো পড়ুন :

শুভ বিবাহ ছন্দ – শুভ বিবাহ বার্ষিকী শুভেচ্ছা ও দোয়া

শুভ সকাল SMS – 50 টির বেশি শুভ সকাল এসএমএস

ভালোবাসার ছন্দ কষ্টের

হাসির ছন্দ – 100 প্লাস হাসির ছন্দ ও কবিতা

Maimuna Khan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *